আধুনিক

আগে যদি জানতাম

আগে যদি জানতাম তবে মন ফিরে চাইতাম
এই জ্বালা আর প্রাণে সহে না
ও মন রে…
কিসের তরে রয়ে গেলি তুই !

বলেছিলি তুই যে আমায়
আমি নাকি ভুলে যাবো
ভুলে আমি ঠিকই তো যেতাম,
পোড়া মনে তোরই কথা
বারে বারে বেজে ওঠে ।।
তাই তোকে আর ভোলা হলো না রে
এই জ্বালা আর প্রাণে সহে না ।

আগে যদি জানতাম তবে মন ফিরে চাইতাম
এই জ্বালা আর প্রাণে সহে না

জানিনা কেনো যে আমায়
একা ফেলে চলে গেলি
ভুলেও কি মনে পড়ে না।
তোরই মতো কোনদিন
আমিও যে ভুলে যাবো
তবু এই জ্বালা প্রাণে সইবো না রে
এই জ্বালা আর প্রাণে সহে না।

আগে যদি জানতাম তবে মন ফিরে চাইতাম
এই জ্বালা আর প্রাণে সহে না

ব্যান্ড

শ্রাবনের মেঘগুলি

শ্রাবনের মেঘগুলি জড়ো হলো আকাশে
অঝরে নামবে বুঝি শ্রাবনেই ঝরায়ে

আজ কেন মন উদাসী হয়ে
দূর অজানায় চায় হারাতে

কবিতার বই সবে খুলেছি
হিমেল হাওয়ায় মন ভিজেছে
জানালার পাশে চাঁপা মাধবী
বাগান বিলাসী হেনা দুলেছে

আজ কেন মন উদাসী হয়ে
দূর অজানায় চায় হারাতে

মেঘেদের যুদ্ধ শুনেছি
সিক্ত আকাশ কেঁদে চলেছে
থেমেছে হাঁসের জলকেলী
পথিকের পায়ে হাঁটা থেমেছে

আজ কেন মন উদাসী হয়ে
দূর অজানায় চায় হারাতে

শ্রাবনের মেঘগুলো জড়ো হলো আকাশে
অঝরে নামবে বুঝি শ্রাবনেই ঝরায়ে

ছায়াছবি

সময় চুরি

সময় টা চুরি করে
ক্ষ্যাপামনে ফাঁকতালে
রাতজাগা দিনে ছোটা
জীবনের ঘুড়ি ওড়ে
উড়ে উড়ে ঘুরে ঘুরে
প্রতিদিন খেলাতে
বাঁধছাড়া স্বপ্নের ক্যানভাস আঁকাতে

যাকনা জীবন যাচ্ছে যখন
নির্ভানার নাটাই হাতে
ইচ্ছে যেমন মেঘ আকাশে
আশায় বোনা চোখটা ছুঁয়ে

ছোটবর কতশত পথভুলে পথে ফিরি
ঐঁদোগলি অলিগলি ভীড় কথা কাটাকাটি
হেঁসে কাঁদা, কেঁদে হাঁসা হরদম ছোটাছুটি
রাতশেষে দিনে ফিরে এই বেশ বেঁচে আছি

ছায়াছবি

দ্বিধা

বাহির বলে দূরে থাকুক,
ভিতর বলে আসুক না।
ভিতর বলে দূরে থাকুক,
বাহির বলে আসুক না।

ঢেউ জানা এক নদীর কাছে,
গভীর কিছু শেখার আছে
সেই নদীতে নৌকা ভাসাই, ভাসাই করে ভাসাই না
না ডুবাই না ভাসাই, না ভাসাই না ডুবাই।।

জল দাকেয় আগুনও টানে,
আমি পড়ি মধ্যিখানে-
দুই দিকে দুই খন্ড হয়ে যাই, আবার যাই না
না নিভাই না জালাই, না জালাই না নিভাই।।

আধুনিক

পলাশ ফুটেছে শিমুল ফুটেছে

পলাশ ফুটেছে শিমুল ফুটেছে এসেছে দারুন মাস
আমি জেনি গেছি তুমি আসিবেনা ফিরে মিটিবেনা পিয়াস

পলাশ ফুটেছে শিমুল ফুটেছে এসেছে দারুন মাস
আমি জেনি গেছি তুমি আসিবেনা ফিরে মিটিবেনা পিয়াস

কতদিন কত আশার সপন দেখেছি সংগোপনে
কতদিন কত আশার সপন দেখেছি সংগোপনে
হৃদয় আমার ভরেছিলাম দখিনা সমীরনে
স্বপন আমার বিফল হল
স্বপন আমার বিফল হল মনরে…………….
স্বপন আমার বিফল হল
আসেনি সে মধু মাস

আমি জেনি গেছি তুমি আসিবেনা ফিরে মিটিবেনা পিয়াস
পলাশ ফুটেছে শিমুল ফুটেছে এসেছে

তোমার রঙ্গিন কুঞ্জমেলায় রং দিতে আমি এসে…
তোমার রঙ্গিন কুঞ্জমেলায় রং দিতে আমি এসে
এ মন আমার রাঙ্গিয়েছিলাম তোমাকে ভালবেসে
সুখের বাতাস বহেনা এখন
সুখের বাতাস মনরে….

সুখের বাতাস বহেনা এখন হৃদয়ে দীর্ঘশ্বাষ
আমি জেনি গেছি তুমি আসিবেনা ফিরে মিটিবেনা পিয়াস
পলাশ ফুটেছে শিমুল ফুটেছে এসেছে দারুন মাস
আমি জেনি গেছি তুমি আসিবেনা ফিরে মিটিবেনা পিয়াস
পলাশ ফুটেছে শিমুল ফুটেছে….

ছায়াছবি

এ কী সোনার আলোয় জীবন ভরিয়ে দিলে

একি সোনার আলোয়
জীবন ভরিয়ে দিলে।
ওগো বন্ধু কাছে থেকো কাছে থেকো।
রিক্ত আমার ক্ষুদ্র প্রাণে
তোমার আঁখিটি রেখো।।

আমি দিয়েছি আমার হৃদয় লুটিয়ে
তোমার প্রেমের জন্য
তুমি দু’হাত বাড়ায়ে বুকেতে জড়ায়ে
করেছো আমায় ধন্য।
বুকের পাঁজরে তেমনি লুকিয়ে রেখো
এমনি আমায় প্রাণের বাঁধনে
সোনার খাঁচাতে রেখো।।

জীবন হবে যে এতো সুন্দর
কখনো ভাবিনি আগে
এতো সুখ আর এতো আনন্দ
স্বপ্নের মতো লাগে।

ওগো যদি কোনোদিন জলছবি সম
মুছে যায় এই ছবি
আমি ঘুম ভেঙে দেখি স্বপ্নের মতো
হয়েছে বিফল সবই।

সেদিন বন্ধু আমার কথাটি রেখো
রাতের নিরলে আমার স্মৃতির
প্রদীপ জ্বালিয়ে রেখো।।

আধুনিক

দূরে কোথাও আছি বসে

দূরে কোথাও আছি বসে
হাত দুটো দাও বাড়িয়ে
বিরহ ছুতে চায় মনের দুয়ার
দু’চোখ নির্বাক আসো না ছুটে

তুমি এলে রংধনু রঙ ঢেলে দেয়
তুমি এলে মেঘেরা বৃষ্টি ঝরায়
এ মনের আহলাদ আসো না ছুটে।

অনুরাগে ঝরে চাঁদোয়া
এ লগনেও এলে না
অনুভব নিশ্চুপ আজ
কথা যে বলে না
ভালো যদি বাসো তুমি আমাকে
ছুটে চলে আসো না।

নীলাচল নির্মল হাওয়া
এ লগনেও এলে না
অচেতন থাকে এ মন
নিষ্প্রাণ যত ভাবনা
ভালো যদি বাসো তুমি আমাকে
ছুটে চলে আসো না।।

আধুনিক

সুখে থাকো ও আমার নন্দিনী

সুখে থাকো ও আমার নন্দিনী
হয়ে কারো ঘরনী ।
জেনে রাখো প্রাসাদেরও বন্দিনী
প্রেম কভূ মরেনি ।

চলে গেছো কিছুতো বলে যাও নি
পিছুতো ফিরে চাও নি
আমিও পিছু ডাকিনি
বাধা হয়ে বাঁধি…

ভুলে আছো কখনো মনে করো নি
দু’ফোটা জলও ফেলো নি
আমি তো ভুলে থাকিনি
রাখি খুলে রাখিনি।

সুখে থাকো ও আমার নন্দিনী
হয়ে কারো ঘরনী
জেনে রাখো প্রাসাদেরও বন্দিনী
প্রেম কভূ মরেনি।

রবীন্দ্র সংগীত

জাগরনে যায় বিভাবরী

জাগরনে যায় বিভাবরী
আঁখি হতে ঘুম নিল হরি
কে নিল হরি
মরি মরি ।।

যার লাগি ফিরি একা একা
আঁখি পিপাসিত, নাহি দেখা
তারি বাঁশি ওগো তারি বাঁশি
তারি বাঁশি বাজে হিয়া ভরি
মরি মরি ।।

বানী নাহি তবু কানে কানে
কী যে শুনি
কী যে শুনি তাহা কে বা জানে

এই হিয়া ভরা বেদনাতে
বারি -ছলও ছলও আঁখি পাতে
ছায়া দোলে তারি ছায়া দোলে
তারি ছায়া দোলে
ছায়া দোলে দিবানিশি ধরি মরি মরি ।।

আধুনিক

শুধু তোরে

কেনো এত হারাবার ভয় , কেনো মনে সংশয়
ভালোবেসে তোকে দূরে হারাবো সেই তো হবার নয় (২ বার)

বন্ধ হলে চোখের ই পাতা , অন্ধ যে চারদিক
বন্য মনে হনে হন্য হয়ে হারাই দিক বিদিক …

শুধু তোরে প্রান ভরে ভালোবাসাবো
শুধু তোরে ভালোবেসে এই বুকে জড়াবো ………….

কি যে মায়া তোর মোহতে , কি যে আকুল করা সে টান
যায় কি থাকা শুন্য দেহে , যদি না থাকে তাতে প্রান

বন্ধ হলে চোখের ই পাতা , অন্ধ যে চারদিক
বন্য মনে হন্যে হয়ে হারাই দিক বিদিক …

শুধু তোরে প্রান ভরে ভালোবাসাবো
শুধু তোরে ভালোবেসে এই বুকে জড়াবো ………….

************************************

আধুনিক

সখি

সখিরে সখিরে যাইয়ো না দূরে রে
দূরে গেলে আমার মনটা পোড়ে
নিরবে নিরবে এই অন্তর জ্বলেরে
দিবা নিশি থাকো হৃদয় জুড়ে

বন্ধুরে বন্ধুরে যাইয়ো না দূরে রে
দূরে গেলে আমার মনটা পোড়ে
নিরবে নিরবে এই অন্তর জ্বলেরে
দিবা নিশি থাকো হ্রদয় জুড়ে

দিন যে যায় , মাস যে যায়
ভালোবাসা শুধু বেড়ে বেড়ে যায়
চোখ বুঝলেই কত স্বপ্ন হায়
সুখ পাখিটার ডানায় ডানায়

বুকের এই গভীরে অন্তরে বাহিরে
মন খুজে শুধু তোমায় তোমায় …..

ঐ ………………………..
চোখ যে হায় স্বপ্ন পোড়ায়
নীল আধারের গল্প মায়ায়
পোড়ে বুক হ্রদয় জানায়
সেই হাসিটার ছোয়ায় ছোয়ায়

বুকের এই গভীরে অন্তরে বাহিরে
মন খুজে শুধু তোমায় তোমায় ……….
ঐ………….

আধুনিক

মনে মনে

কতবার , কতবার চেয়েছি তোমায় মনে মনে
কতবার ডেকেছি চোখের ই অশ্রুজলে …..
চেয়েছি যেতে তোমায় হ্রদয়ের কাছে
ভালোবাসা রয়ে গেছে গোধূলির মেঘে

হয়তো ও বা কোনো ও ক্ষনে
তুমি এসে বলবে হেঁসে (২বার )

এসেছি তোমায় ভালোবেসে
এসেছি তোমায় ভালোবেসে …………..

তোমার আকাশে সূর্যেরা সারাদিনে
কতবার আলোতে জোড়ায় তোমাকে

আমি আসতে চেয়েছি
বারে বারে সেখানে
জড়াতে তোমায় আমার
এই নিল আচলে …………….

হয়তো ও বা কোনো ও ক্ষনে
তুমি এসে বলবে হেঁসে (২বার )

এসেছি তোমায় ভালোবেসে
এসেছি তোমায় ভালোবেসে …………..

**********************************************

ছায়াছবি

ও গানওয়ালা

ও গানওয়াল আর একটা গান গাও
আমার আর কোথাও যাবার নেই
কিচ্ছু করার নেই ……………………..

ছেলেবেলার সেই , ছেলেবেলার সেই
বেহালা বাজানো লোকটা , চলে গেছে বেহালা নিয়েই
চলে গেছে গান শুনিয়েই ………………

এই পালটানো সময়েই , এই পালটানো সময়েই
সে ফিরবে কি ফিরবে না জানা নেই

ও গানওয়ালা আর একটা গান গাও
আমার আর কোথাও যাবার নেই
কিচ্ছু করার নেই ……………………..

কৈশোর শেষ হওয়া , কৈশোর শেষ হওয়া ,
রঙ চঙ্গে স্বপ্নের দিন
চলে গেছে রঙ হারিয়ে , চলে গেছে মুখ ফিরিয়েই
এই ফটাকাবাজির দেশে , এই ফটাকাবাজির দেশে
স্বপ্নের পাখিগুলো বেঁচে নেইইই………….

ও গানওয়াল আর একটা গান গাও
আমার আর কোথাও যাবার নেই
কিচ্ছু করার নেই ……..

আধুনিক

আজ আমার মন ভালো নেই

আজ আমার মন ভালো নেই
বসছে না মন কিছুতেই
খোলা জানালায় দাঁড়িয়ে
সুদূর আকাশ থেকে কিছু রঙ এনে দাও না
আজ আমার মন ভালো নেই
ভালো নেই ভালো নেই

নদী মরে যায় শুকোলেই
এমন তো কোনো কথা নেই
আবার শ্রাবণ এসে ভরে দিয়ে যায়
তৃষিত নদীর বুক
তেমন শ্রাবণ হয়ে তুমি আজ ভরে যাও না
আজ আমার মন ভালো নেই

আলো নেভে দিন ফুরোলেই
এমন তো কোনো কথা নেই
জোনাকি প্রদীপ হয়ে জ্বেলে দিয়ে যায়
তিমির রাতের মুখ
তেমন প্রদীপ হয়ে তুমি আজ জ্বলে যাও না
আজ আমার মন ভালো নেই
ভালো নেই ভালো নেই

আধুনিক

এর বেশী ভালবাসা যায় না

চোখ মেললেই দেখি তোমাকে
চোখ বুজলেই পাই আরো কাছে
তারও বেশি ভালবাসা আমি দিতে চাই

যত ভালবাসা পৃথিবীতে আছে
ভালবাসি বড় ভালবাসি
এর বেশি ভালবাসা যায় না
ও আমার প্রাণ পাখি ময়না

ভালবাসি বড় ভালবাসি
এর বেশি ভালবাসা যায় না
ও আমার প্রাণ পাখি ময়না

সূর্যের বুকে আছে যতটা আলো
তারও বেশি তোমাকে বেসেছি ভাল

রাত যত ভরে থাক আঁধার কালোয়
আলোকিত হতে চাই তোমার আলোয়

ভালবাসি বড় ভালবাসি
এর বেশি ভালবাসা যায় না
ও আমার প্রাণ পাখি ময়না

ভালবাসি বড় ভালবাসি
এর বেশি ভালবাসা যায় না
ও আমার প্রাণ পাখি ময়না

একটিও পলক একাকী তুমিহীনা
চেনা চেনা লাগে বড় অচেনা

ও রাত যত ভরে থাক আঁধার কালোয়
আলোকিত হতে চাই তোমার আলোয়

ভালবাসি বড় ভালবাসি
এর বেশি ভালবাসা যায় না
ও আমার প্রাণ পাখি ময়না