ব্যান্ড

স্বপ্নহারা বিবেকের দুয়ারে

স্বপ্নহারা বিবেকের দুয়ারে
দাঁড়িয়ে থাকা আমি এক ক্লান্ত পথিক
স্বপ্নহারা বিবেকের দুয়ারে
দাঁড়িয়ে থাকা আমি এক ক্লান্ত পথিক
ইচ্ছের প্রান্তরে যতদুর দৃষ্টি যায়
চেয়ে থাকি শূণ্যতায়……….
স্বপ্নহারা বিবেকের দুয়ারে
দাঁড়িয়ে থাকা আমি এক ক্লান্ত পথিক।

আগামী দিনের একফোঁটা আশ্বাসে
পুরনো প্রেমিকার ভেঙ্গে দেওয়া বিশ্বাসে
জানা অজানার ভীরে পাথর সময়।
আগামী দিনের একফোঁটা আশ্বাসে
পুরনো প্রেমিকার ভেঙ্গে দেওয়া বিশ্বাসে
জানা অজানার ভীরে পাথর সময়।
ইচ্ছের প্রান্তরে যতদুর দৃষ্টি যায়
চেয়ে থাকি শূণ্যতায়……………..
স্বপ্নহারা বিবেকের দুয়ারে
দাড়িয়ে থাকা আমি এক ক্লান্ত পথিক।

বিরহী রাতে হৃদয়ের বন্দরে
পরাজিত কেউ একাকি কেঁদে ফেরে
সুখের পলি জলে চর পড়ে যায়।
বিরহী রাতে হৃদয়ের বন্দরে
পরাজিত কেউ একাকি কেঁদে ফেরে
সুখের পলি জলে চর পড়ে যায়।
ইচ্ছের প্রান্তরে যতদুর দৃষ্টি যায়
চেয়ে থাকি শূণ্যতায়……………..

স্বপ্নহারা বিবেকের দুয়ারে
দাড়িয়ে থাকা আমি এক ক্লান্ত পথিক।
ইচ্ছের প্রান্তরে যতদুর দৃষ্টি যায়
চেয়ে থাকি শূণ্যতায়……………..
স্বপ্নহারা বিবেকের দুয়ারে
দাড়িয়ে থাকা আমি এক ক্লান্ত পথিক।

ব্যান্ড

মা

দশমাস দশদিন ধরে গর্ভে ধারণ
কষ্টের তীব্রতায় করেছে আমায় লালন,
হঠা” কোথায় না বলে হারিয়ে গেল
জন্মান্তরের বাঁধন কোথা হারালো।
সবাই বলে ঐ আকাশে লুকিয়ে আছে
খুঁজে দেখ পাবে দুর নক্ষত্র মাঝে।
রাতের তারা আমায় কি তুই বলতে পারিস
কোথায় আছে কেমন আছে মা।
ওরে তারা রাতের তারা মা“কে জানিয়ে দিস
অনেক কেঁদেছি আর কাঁদতে পারিনা।

মায়ের কোলে শুয়ে হারানো সে সুখ
অন্য মুখে খুঁজে ফিরি সেই প্রিয়মুখ
অনেক ঋণের জালে মাগো বেঁধেছিলে তাই
বিষাদের অভয়ারণ্যে ভয় তবু পাই।
সবাই বলে ঐ আকাশে লুকিয়ে আছে
খুঁজে দেখ পাবে দুর নক্ষত্র মাঝে
রাতের তারা আমায় কি তুই বলতে পারিস
কোথায় আছে কেমন আছে মা
ওরে তারা রাতের তারা মাকে জানিয়ে দিস
অনেক কেঁদেছি আর কাঁদতে পারিনা।

সবাই বলে ঐ আকাশে লুকিয়ে আছে
খুঁজে দেখ পাবে দুর নক্ষত্র মাঝে
রাতের তারা আমায় কি তুই বলতে পারিস
কোথায় আছে কেমন আছে মা
ওরে তারা রাতের তারা মাকে জানিয়ে দিস
অনেক কেঁদেছি আর কাঁদতে পারিনা।

ব্যান্ড

এপিটাফ

যেদিন বন্ধু চলে যাব,
চলে যাব বহুদূরে….
ক্ষমা করে দিও আমায়,
ক্ষমা করে দিও।
মনে রেখ কেবল একজন ছিল
ভালবাসতো শুধুই তোমাদের
মনে রেখ কেবল………. তোমাদের।

চোরা সুরের টানে রে বন্ধু
মনে যদি উঠে গান,
গানে গানে রেখো মনে
ভুলে যেও অভিমান (2)
মনে রেখো কেবল……….তোমাদের (2)

ভরা নদীর বাঁকে রে বন্ধু
ঢেওয়ে ঢেওয়ে দোলে গান
চলে যেতে হবে ভেবে
কেঁদে উঠে মন প্রাণ (2)
মনে রেখো কেবল………. তোমাদের (2)

যেদিন বন্ধু…………………..

ছায়াছবি

আমার সারাদেহ খেয়ো গো মাটি

আমার সারাদেহ খেয়ো গো মাটি
এই চোখ দুটি মাটি খেয়ো না
আমি মরে গেলেও তারে দেখার সাধ
মিটবে না গো মিটবে না
তারে এক জনমে ভালোবেসে
ভরবে না মন ভরবে না

ওরে… ইচ্ছে করে বুকের ভিতর
লুকিয়ে রাখি তারে
যেন না পারে সে যেতে
আমায় কোনদিনও ছেড়ে
আমি এই জগতে তারে ছাড়া
থাকবো নারে থাকবো না
তারে এক জনমে ভালোবেসে
ভরবে না মন ভরবে না

ওরে… এই না ভুবন ছাড়তে হবে
দুইদিন আগে পরে
বিধি, একই সঙ্গে রেখো মোদের
একই মাটির ঘরে
আমি এই না ঘরে থাকতে একা
পারবো নারে পারবো না
তারে এক জনমে ভালোবেসে
ভরবে না মন ভরবে না

ছায়াছবি

সোনাই হায় হায়রে

কেহ লইলো আতর লোবান
কেহ লইলো জল
কেহ লইলো বরই পাতা
কেহ লইলো পরীরে
সোনাই হায় হায়রে
সোনাই হায় হায়রে ।।

ফুল কান্দে পাখি কান্দে
কান্দে গাঙের পাড়
কান্দিয়া কান্দিয়া সোনাই
হইলো জারে জার ।।

বাবায় দিলো কন্যারে কাঁধ
শ্বশুর দিলো মাটি
বৃষ্টি পড়ে টাপুর টুপুর
মাটি ছুঁয়ে খাঁটি
সোনাই হায় হায়রে
সোনাই হায় হায়রে ।

ব্যান্ড

চাইতে পারো ২

চাইতেই পারো আবার সেই জোছনা
ঘরের সিলিং এ সন্ধ্যা তারাটা
চাইতেই পারো সারা রাত আর সারা দিন
হবেনা যে কখনও আর লোডশেডিং
চাইতেই পারো আমার ঘাড়ে পা রেখে
আকাশটা ছোঁয়ার স্বপ্ন দেখতে
চাইতেই পারো শুনতে নতুন এক গান
করবোনা যেখানে তোমায় আর অপমান!
এক মুঠো গোলাপ, আর ঐ নীল আকাশ,
আকাশের ঐ চাঁদ অথবা এই রাত!
কান্না ভেজা চোখ, অথবা মিষ্টি হাসি
যতই দেখাও আমাকে পাবেনা কিছুই তুমি!
তোমার জন্য নয়, আমার কোন কিছুই
বলেছিলাম অনেক আগেই
ভুলে গেছ কি!
চাইতেই পারো তুমি জি সিরিজ থেকে
ফুয়াদ ফিচারিং এ্যালবাম ছাড়তে
চাইতেই পারো চেষ্টা করে দেখতে
কে আছে আমার ফেসবুক ফ্রেন্ড লিস্টে
চাইতেই পারো তুমি হয়ে যেতে আজকে
এফএম চ্যানেলের হিট কোন আরজে
চাইতেই পারো নতুন এক ডিউ স্প্রে দিয়ে
মনের দুর্গন্ধটা দূর করতে!
এক মুঠো গোলাপ, আর ঐ নীল আকাশ,
আকাশের ঐ চাঁদ অথবা এই রাত!
কান্না ভেজা চোখ, অথবা মিষ্টি হাসি
যতই দেখাও আমাকে পাবেনা কিছুই তুমি!
তোমার জন্য নয়, আমার কোন কিছুই
বলেছিলাম অনেক আগেই
ভুলে গেছ কি! (x 2)

ব্যান্ড

বায়োস্কোপ

তোমার বাড়ির রঙ্গের মেলায়
দেখেছিলাম বায়স্কোপ
বায়স্কোপের নেশায় আমায় ছাড়েনা ।

ডাইনে তোমার চাচার বাড়ি
বায়ের দিকে পুকুরঘাট
সেই ভাবনায় বয়স আমার বাড়েনা ।

অন্তরে থাক পদ্ম-গোলাপ
গদ্যে-পদ্যে আঁকছি মুখ
ঘুরতে ছিলাম রঙ্গের মেলায়
অপূর্ব সে তোমার চোখ
অমন পলক ফেলতে তো কেউ পারেনা।

হঠাৎ তোমায় মন দিয়েছি
ফেরৎ চাইনি কোন দিন
মন কি তোমার হাতের নাটাই
তোমার কাছে আমার ঋণ
মন হারালেও মনের মানুষ হারে না।

তোমার বাড়ির রঙ্গের মেলায়
দেখেছিলাম বায়স্কোপ
বায়স্কোপের নেশায় আমায় ছাড়েনা।
ডাইনে তোমার চাচার বাড়ি
বায়ের দিকে পুকুরঘাট
সেই ভাবনায় বয়স আমার বাড়েনা ।

ছায়াছবি

আবার এলো যে সন্ধ্যা

আবার এলো যে সন্ধ্যা, শুধু দু’জনে
চলো না ঘুরে আসি অজানাতে
যেখানে নদী এসে থেমে গেছে।।

ঝাউবনে হাওয়াগুলো খেলছে
সাঁওতালি মেয়েগুলো চলছে
লাল লাল শাড়ীগুলো উড়ছে
তার সাথে মন মোর দুলছে।

ঐ দুর আকাশের প্রান্তে
সাত রঙা মেঘ গুলো উড়ছে।।

এই বুঝি বয়ে গেল সন্ধ্যা
ভেবে যায় কি জানি কি মনটা
পাখিগুলো নীড়ে ফিরে চলছে
গানে গানে কি যে কথা বলছে

ভাবি শুধু এখানেই থাকবো
ফিরে যেতে মন নাহি চাইছে।।

ব্যান্ড

চাঁদ তারা সূর্য নও তুমি

চাঁদ তারা সূর্য নও তুমি
নও পাহাড়ী ঝর্না,
যদি বলি ফুল তবুও হবে ভুল
তোমার তুলনা হয়না।

তুমি না এলে এই পৃথিবী আমার
হারাবে আপন ঠিকানা
যদি দূরে যাও স্বপ্ন গুলো আমার
ভেঙ্গে যাবে জানো না।

তোমার কথা ভেবে ভেবে
আমি গল্প কবিতা আর কাব্য লিখি,
তোমার চোখে চেয়ে থেকে
সুন্দর আমার পৃথিবী দেখি।

তুমি না এলে এই পৃথিবী আমার
হারাবে আপন ঠিকানা
যদি দূরে যাও স্বপ্ন গুলো আমার
ভেঙ্গে যাবে জানো না।

জীবন চলার পথে জানি
তুমি প্রথম দিয়েছ দেখা,
ভুল বুঝে কোনোদিনও
আমায় তুমি করোনা একা।

তুমি না এলে এই পৃথিবী আমার
হারাবে আপন ঠিকানা
যদি দূরে যাও স্বপ্ন গুলো আমার
ভেঙ্গে যাবে জানো না।

আধুনিক

নীলা তুমি আবার এসো ফিরে

নীলা তুমি আবার এসো ফিরে
ভালবাসা কাঁদে আজো বুক চিরে চিরে
তুমি নেই প্রেম নেই, কিছু নেই।।

বিরহের কি বেদনা
আমি ছাড়া কেউ তা জানে না।
তুমি না এলে এ ব্যাথা কোনদিন
মুছে আর যাবে না।।

পড়ে আছি একা আধারে
নেই শান্তি, এই জীবনে।

আমিতো পুড়ি নীরবে,
প্রতিদিন বিরহের আগুনে।।

আধুনিক

যে প্রেম স্বর্গ থেকে এসে

যে প্রেম স্বর্গ থেকে এসে

যে প্রেম স্বর্গ থেকে এসে
জীবনে অমর হয়ে রয়।।
সেই প্রেম আমাকে দিও,
জেনে নিও
তুমি আমার প্রানের চেয়ে প্রিয়।

তুমি আর আমি আর কেউ নাই
এমন একটা যদি পৃথিবী হয়
মিলনের সুখে ভরে যায় বুক
যেখানে আছে শুধু সুখ আর সুখ
সেই সুখ আমাকে দিও।।
জেনে নিও
তুমি আমার প্রানের চেয়ে প্রিয়।

চাই না কিছুই তো জীবনে আর
তোমার মুখটা যদি দেখি একবার
এ জীবন করেছ কত যে মধুর
হৃদয়ে কত গান কত যে সুর
সেই সুর আমাকে দিও
জেনে নিও
তুমি আমার প্রানের চেয়ে প্রিয়।

ব্যান্ড

আমি ভুলব না তোমাকে

বিস্ময় ছিলে তুমি স্বপ্ন আমার
কাছে পাব না জানি তোমাকে তো আর
কাটতো সময় কত গল্প করে
বলতে ভালবাসি হাতটি ধরে
আমি ভুলব না, আমি ভুলব না আমি ভুলব না তোমাকে।
আমি ভুলব না, আমি ভুলব না, আমি ভুলব না তোমাকে।

স্বপ্ন প্রহরগুলো মনে পড়ে যায়
সোনালী আবেগ কাছে ডাকতো আমায়
স্মৃতিগুলো আজ শুধু আবেশে জড়ায়
ব্যর্থ এ মন শুধু আমাকে কাঁদায়।
আমি ভুলব না, আমি ভুলব না আমি ভুলব না তোমাকে।

প্রেম কি ছিল না ছিল শুধু প্রহসন
চেয়েছি নিবিড় করে শুধু অকারণ
তোমারই ছবি মনে তুমি পাশে নেই
অন্যের হয়ে গেলে খুব সহজেই
কেন থাকলে না, কেন থাকলে না কেন থাকলে না আমার হয়ে
আমি ভুলব না, আমি ভুলব না, আমি ভুলব না তোমাকে।

দিশেহারা হয়ে পড়ে আছি তবু
পারি নি মেনে নিতে ভুলে যাবে কভু
চলে গেল কেন একা ফেলে আমাকে

তোমার অবুঝ মন বুঝেনি তখন
হয়ত পারি নি হতে তোমারই মতন
হৃদয়মাঝে স্মৃতি চিহ্ন রেখে
প্রেমের সমাধি মনে গেলে যে এঁকে
আমি ভুলব না, আমি ভুলব না, আমি ভুলব না তোমাকে।

ব্যান্ড

বাংলাদেশ

তুমি মিশ্রিত লগ্ন মাধুরীর জলে ভেজা কবিতায়
আছো সারোয়ার্দী, শেরেবাংলা, ভাসানীর শেষ ইচ্ছায়
তুমি বঙ্গবন্ধুর রক্তে আগুন জ্বালা জ্বালাময়ী সে ভাষণ
তুমি ধানের শীষে মিশে থাকা শহীদ জিয়ার স্বপন
তুমি ছেলেহারা মা জাহানারা ইমামের একাক্তরের দিনগুলি
তুমি জসিম উদদীনের নকশী কাথার মাঠ, মুঠো মুঠো সোনার ধুলি
তুমি তিরিশ কিংবা তার অধিক লাখো শহীদের প্রাণ
তুমি শহীদ মিনারের প্রভাতফেরী, ভাইহারা একুশের গান
আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি
জন্ম দিয়েছো তুমি মাগো, তাই তোমায় ভালোবাসি
আমার প্রাণের বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি
প্রাণের প্রিয় মাগো তোকে, বড় বেশী ভালোবাসি………

তুমি কবি নজরুলের বিদ্রোহী কবিতা, উন্নত মম শির
তুমি রক্তের কালিতে লেখা নাম, সাত শ্রেষ্ঠ বীর
তুমি সুরের পাখি আব্বাসের দরদভরা সেই গান
তুমি আব্দুল আলীমের সর্বনাশা পদ্নানদীর টান
তুমি সুফিয়া কামালের কাব্যভাষায় নারীর অধিকার
তুমি স্বাধীন বাংলা বেতারকেন্দ্রের শাণিত ছুরির ধার
তুমি জয়নুল আবেদীন, এস এম সুলতানের রংতুলির আঁচড়
শহীদুল্লাহ কায়সার, মুনির চৌধুরীর নতুন দেখা সেই ভোর
আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি
জন্ম দিয়েছো তুমি মাগো, তাই তোমায় ভালোবাসি
আমার প্রাণের বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি
প্রাণের প্রিয় মাগো তোকে, বড় বেশী ভালোবাসি………..

তুমি বিস্মৃত লগ্নমাধুরীর জলে ভেজা কবিতায়
তুমি বাঙ্গালীর গর্ব, বাঙ্গালীর প্রেম, প্রথম ও শেষ ছোঁয়ায়
তুমি বঙ্গবন্ধুর রক্তে আগুন জ্বালা জ্বালাময়ী সে ভাষণ
তুমি ধানের শীষে মিশে থাকা শহীদ জিয়ার স্বপন
তুমি একটি ফুলকে বাঁচাবো বলে বেজে ওঠো সুমধুর
তুমি রাগে অনুরাগে মুক্তিসংগ্রামে সোনাধরা সেই রোদ্দুর
তুমি প্রতিটি পঙ্গু মুক্তিযোদ্ধার অভিমানের সংসার
তুমি ক্রন্দন, তুমি হাসি, তুমি জাগ্রত শহীদ মিনার
আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি
জন্ম দিয়েছো তুমি মাগো, তাই তোমায় ভালোবাসি
আমার প্রাণের বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি
প্রাণের প্রিয় মাগো তোকে, বড় বেশী ভালোবাসি……..

ছায়াছবি

আমি আছি থাকবো

আমি আছি থাকবো ভালবেসে মরবো
দোহায় লাগে তোমার আমারে পাগল কইরো না।।

আঁচলে ফুল রেখেছি তোমায় দিল বলে
কপালে টিপ দিয়েছি যাব সময় হলে।
দোহায় লাগে তোমার ঘরের বাহির কইরো না।।

আগুনে হাত দিয়েছি পুড়ে যাব বলে
ভালবাসার সুখ নেবো আমি জ্বলে জ্বলে
দোহায় লাগে তোমার কলংকে নাম দিও না।।

আধুনিক

আমি আছি

আমি আছি , আমি আছি
তোমার মিস্টি হাসির আড়ালে
এদিক ওদিক আনমনে তাকালে
আর টোল পড়া বাদিকের গালে

আমি আছি , আমি আছি
তোমার চঞ্চল চোখের কাজলে
ঐ সুগুন্ধি এলোমেলো চুলে
আর ম্যচ করা কানের দুলে

আমি আছি , আমি আছি
আমি আছি , আমি আছি
কাছাকাছি

দুপুরের সূর্য গড়লে
তোমার স্লান ঘরে
আলো নিবে গেলে
যদি স্যম্পু ফেনায় চোখ জলে
আমি আছি

শনিবারের ছুটির সকালে
আলসের ঘুম গায়ে এলে
কেউ কলিং বেলে ডেকে গেলে
আমি আছি

পরিপাটি শারির আচলে
কুচির ভাজগুলো এলো মেলো হলে
যদি বাতাস ঘূর্ণি পাকে খেলে
আমি আছি

মাশকার খুজে না পেলে
লিপিলাইনারটা হারালে
দোলের পুশগুলো পালিয়ে বেড়ালে
আমি আছি , আমি আছি
তোমার খুব কাছাকাছি

ঘামে ভেজা গরম দুপুরে
তোমার নরম পায়ের নূপুরে
আর অথই ভুলের সাগরে
আমি আছি

নালিশে ভরা বালিশে
তোমার দুহাতের নেইল পলিশে
দু স্বপ্নের রাতগুলো শেষে
আমি আছি

অফিসের কাজের প্রেসারে
যখন জড়সড় তুমি একেবারে
এসো মুখ গুজো বুকের পাঁজরে
আমি আছি

অভিমানে আর আবদারে
একান্ত কোন আদরে
আর ঘুম ভাঙা প্রতিটি প্রহরে
আমি আছি

আমি আছি , আমি আছি
তোমার মিস্টি হাসির আড়ালে
এদিক ওদিক আনমনে তাকালে
আর টোল পড়া বাদিকের গালে

আমি আছি , আমি আছি

আমি আছি , আমি আছি
তোমার চঞ্চল চোখের কাজলে
ঐ সুগুন্ধি এলোমেলো চুলে
আর ম্যচ করা কানের দুলে

আমি আছি , আমি আছি

দূরে থেকেও কাছা কাছি

**********************************************