দেশাত্মবোধক গান

সামনে চলো বাংলাদেশ

উঠেছে গর্জে বাংলার দামাল ছেলে
দেখিয়ে দেবে এ বিশ্বকে ব্যাটে বলে
লড়াই চলবে মাঠে উড়বে বিজয়ের নিশান
সামনে চলো বাংলাদেশ
ভয় কিসের আবার
হবেই হবে নিশ্চিত জয় হবে তোমার

শ্বাসরূদ্ধ ম্যাচে
টান টান উত্তেজনা
কোটি বাংগালী একসাথে করছে প্রার্থনা
প্রতিপক্ষ যেই হোক
পর তুমি ঝাপিয়ে
ভাবনা কিসের আবার লড়ো যা আছে তাই নিয়ে
লড়াই চলবে মাঠে
উড়বে বিজয়ের নিশান

সামনে চলো বাংলাদেশ
ভয় কিসের আবার
হবেই হবে নিশ্চিত
জয় হবে তোমার

প্রত্যয়ে যাও এগিয়ে
করো ইতিহাস অর্জন
এমন কে আছে শোনেনি
বাংলার বাঘের গর্জন

লক্ষে যাও এগিয়ে
অসীম সাহস নিয়ে
ছিলাম আছি পাশে তোমার
লড়ো দেশের হয়ে

লড়াই চলবে মাঠে
উড়বে বিজয়ের নিশান

সামনে চলো বাংলাদেশ
ভয় কিসের আবার
হবেই হবে নিশ্চিত
জয় হবে তোমার

দেশাত্মবোধক গান

প্রিয় বাংলাদেশ

চলো এগিয়ে যাব
বাঁধা মানি না
জয় হবেই হবে
ভয় করি না
পৃথিবী অপলকে আজ দেখনা
বিজয়েরই রথে প্রিয় বাংলাদেশ
কোটি প্রাণে একই ধ্বনি বাংলাদেশ

বায়ান্ন হোক আর একাত্তুর হোক
হেরেছি আমরা কবে
লাল সবুজের পতাকা আমাদের
সবার উপরে রবে
পৃথিবী অপলকে আজ দেখনা
বিজয়েরই রথে প্রিয় বাংলাদেশ
কোটি প্রাণে একই ধ্বনি বাংলাদেশ

বাঁধন হারা হয়ে প্রতিটি হৃদয়
যেনো আকাশ ছোঁবে
সোনার বাংলা আর হবে না পরাজয়
শুধু এগিয়ে যাবে
পৃথিবী অপলকে আজ দেখনা
বিজয়েরই রথে প্রিয় বাংলাদেশ
কোটি প্রাণে একই ধ্বনি বাংলাদেশ

দেশাত্মবোধক গান

বাংলাদেশ

বুকের মাঝে বাংলাদেশ
সকাল সাঝে বাংলাদেশ
বিজয়ের গল্প লিখে প্রার্থনাতে বাংলাদেশ
বিশ্ব জয়ের স্বপ্ন দেখে দিনে রাতে বাংলাদেশ

আলো আলো আলো জ্বলে উঠো মাঠে সবাই
জিতে জিতে জিতে উল্লাসে মাতে সবাই

লাল সবুজ পতাকা মেলেছি আকাশে
আকাশ ছোয়ার ইচ্ছেটা ওড়াও বাতাসে
এক চাওয়া এক পাওয়া সবার হৃদয়ে
বিজয়ের গল্প লিখে প্রার্থণাতে বাংলাদেশ
বিশ্ব জয়ের স্বপ্ন দেখে দিনে রাতে বাংলাদেশ

আলো আলো আলো জ্বলে উঠো মাঠে সবাই
জিতে জিতে জিতে উল্লাসে মাতে সবাই

হতাশা আর দুঃখটা সাজিয়ে যাও এর আনন্দে
এগিয়ে যাচ্ছ যাও এগিয়ে আগামী ছন্দে
এক চাওয়া এক পাওয়া সবার হৃদয়ে
বিজয়ের গল্প লিখে প্রার্থণাতে বাংলাদেশ
বিশ্ব জয়ের স্বপ্ন দেখে দিনে রাতে বাংলাদেশ

বুকের মাঝে বাংলাদেশ

দেশাত্মবোধক গান

জাগো বাংলাদেশ

ডাকছে তোমায় বিজয়
ছুটে আসো এখনি
পৃথিবীকে দাও শুনিয়ে
বাংলা মায়ের ধ্বনি
করোনা ভয়
রাখো প্রত্যয়
দুচোখে স্বপ্ন অশেষ

জাগো জাগো দেশ
জাগো বাংলাদেশ
চারিদিকে দাও ছড়িয়ে লাল সবুজের রেশ

আকাশ ছোয়া ঋতু সম
বারো আগে বারো
দামাল ছেলে রুখবে তোমায়
নেই তো সাধ্য কারো
করোনা ভয়
রাখো প্রত্যয়
দুচোখে স্বপ্ন অশেষ

জাগো জাগো দেশ
জাগো বাংলাদেশ
চারিদিকে দাও ছড়িয়ে লাল সবুজের রেশ
কোটি প্রাণের আশা পূরন করতে হবে আজি
বিশ্ব জয়ের শপথ নিয়ে ধরতে হবে বাজি
করোনা ভয়
রাখো প্রত্যয়
দুচোখে স্বপ্ন অশেষ

জাগো জাগো দেশ
জাগো বাংলাদেশ
চারিদিকে দাও ছড়িয়ে লাল সবুজের রেশ

দেশাত্মবোধক গান

তোমার আমার ঠিকানা পদ্মা মেঘনা যমুনা

তোমার আমার ঠিকানা পদ্মা মেঘনা যমুনা
গঙ্গার স্রোত ধরে পেয়েছি চলার নিশানা।।

কন্ঠের সুর কোনও মানে না ভাষা
হৃদয়ের ভাষাতেই মেটে পিপাসা
সাত মহাসাগরের উজানে ভেসে
আমরা যেখানে থামি —-সেই সীমানা।।

যেখানে কান্না আর রক্ত মেঘে
আঁধারের বাঁধ ভেঙে সূর্য ওঠে আকাশে আবার
সেখানে নিশানা আছে এগিয়ে যাবার।

যখন আখের স্বাদ নোনতা লাগে
লবঙ্গ বনে ঝড়ের হাওয়ারা জাগে
এক বুক ভালবাসা উজাড় করা
যেখানে ফসল ফলে প্রাণের সোনা।।

দেশাত্মবোধক গান

আমি লিখতে পেরেছি বিশ্বের সেরা মুক্তির ইতিহাস

আমি লিখতে পেরেছি বিশ্বের সেরা মুক্তির ইতিহাস
আর রক্ত আকুল মুক্তির জয়গান।।

বাংলাদেশের কবি আমি সবচেয়ে ভাগবান

দেশাত্মবোধক গান

চেতনার অনুষ্ঠানে

বাঁধলে যারা স্বাধীনতার চাবি বাংলা মায়ের আচলে
স্মরণ করি তোমাদেরকে মোরা শত নদী নয়ন জলে
দিয়েছ যারা প্রাণ মুক্তি আনিতে সেই একাত্তরে
ষোল কোটি হৃদয়ের ভালোবাসা রইল তোমাদের তরে
বৃথা যেতে দেব না রক্ত তোমাদের ঝরেছি যা মুক্তির সন্ধানে
অঙ্গীকার আজ এই আমাদের চেতনার অনুষ্ঠানে
সাজাব এই বাংলাকে ধনে ধানে মানে
অসুন্দর তাড়াব প্রেমের স্লোগানে

এ মাটি আমাদের পাওয়া চৌদ্দ পুরুষের গর্বে
তোমাদের এই বুলি মনে আছে চিরদিনই মনে থাকবে
বাংলাকে দেন না চলতে আর অপ্রিয় পরাধীনে
কথা দিলাম ও শহীদ ভাই ঘুমাও শান্ত প্রাণে
সাজাব এই বাংলাকে ধনে ধানে মানে
অসুন্দর তাড়াব প্রেমের স্লোগানে

পথ যে চলার দিয়েছ বেঁধে রক্তের গাথুনীতে
চলব মোরা স্বপ্ন ছোঁযে চির উন্নতির সে পথি
অহঙ্কার হয়ে তোমরা আছ মিশে লাল সবুজ নিশানে
তোমাদের গর্বে ফুলাই বুক মোরা শক্তি যোগাই প্রাণে
সাজাব এই বাংলাকে ধনে ধানে মানে
অসুন্দর তাড়াব প্রেমের স্লোগানে

দেশাত্মবোধক গান

মাগো ধন্য হল জীবন আমার তোমায় ভালবেসে

মাগো ধন্য হল জীবন আমার তোমায় ভালবেসে
আমি প্রাণ পেয়েছি মান পেয়েছি তোমার কোলে এসে।।

তোমার আশিস পেলে জানি সবকিছু যে মেলে
তোমার হাসি তোমার খুশি ধানের বুকে মেশে।।

তুমি আমার ধাত্রী মাগো তুমি আমার দেশ
খেত-খামারে মাগো তোমার সোনার বরন বেশ।

সোনা তোমার মাটি সে যে সোনার চেয়েও খাঁটি
সকল আঁধার যায়গো ঘুচে কালো রাতের শেষে।।

দেশাত্মবোধক গান

সবুজের বুকে লাল সূর্যটা ঝলমল

সবুজের বুকে লাল সূর্যটা ঝলমল
উচ্ছল প্রাণের বন্যা
আমার সোনার দেশ রূপালী নদীর দেশ
সাগর সোহাগী রাজকন্যা।।

প্রকৃতির লীলায়িত ছন্দে
বিমোহন রূপে রসে গন্ধে।

মনি মুক্তার দেশ সোনালী ধানের দেশ।
পৃথিবীর ইতিহাসে ধন্যা।।

দুর্জয় মনোভাব কর্মে
সত্য ন্যায়ের মহা ধর্মে।

গরবী মনের দেশ সূর্য প্রাণের দেশ।
পৃথিবীর রূপে সে অনন্যা।।

দেশাত্মবোধক গান

যে দেশেতে শাপলা শালুক ঝিলের জলে ভাসে

যে দেশেতে শাপলা শালুক ঝিলের জলে ভাসে
যে দেশেতে কলমি কমল কনক হয়ে হাসে
সে আমাদের জন্মভুমি মাতৃভুমি বাংলাদেশ, বাংলাদেশ, বাংলাদেশ।।

যে দেশেতে পাজরা পানশি উজান ভাটি চলে
যে দেশেতে মাঝি মাল্লা নতুন কথা বলে।
সে আমাদের জন্মভুমি মাতৃভুমি বাংলাদেশ, বাংলাদেশ, বাংলাদেশ।।

যে দেশেতে নদ-নদীরা এক সাগরে মিশে
আমরা সবাই নিত্য খুশি সে দেশ ভালবেসে।

যে দেশেতে সাখের কলসি নদীর ঘাটে আসে
যে দেশেতে খুশির জোয়ার সকল বারো মাসে।
সে আমাদের জন্মভুমি মাতৃভুমি বাংলাদেশ, বাংলাদেশ, বাংলাদেশ।।

দেশাত্মবোধক গান

পদ্ম পাতার পানি নয়

পদ্ম পাতার পানি নয়
দিন যাপনের গ্লানি নয়
জীবনটাকে বুঝতে হলে
জীবন ভালবাসতে হয়। 

শ্রমিক যেমন সবল হাতে
গড়ছে এ দেশ দিনে রাতে
ভিজে পুড়ে যেমন চাষী
মাঠের বুকে ফোঁটায় হাসি।

তেমনি হাজার কাজে মিশে
সুখের হাসি হাসতে হয়।।

দেশের মাটি খাঁটি জেনে
দেশের মানুষ আপন মেনে
বন্ধ মনের দোয়ার খুলে
সকল বাধা বিভেদ ভুলে।

মিলন মেলা সবাই মিলে
সবার কাছে আসতে হয়।।

দেশাত্মবোধক গান

বাহির দুয়ার মোর বন্ধ হে প্রিয়,

বাহির দুয়ার মোর বন্ধ হে প্রিয়,
মনের দুয়ার আজি খোলা,
সেই পথে এসো হে মোর চিতচোর,
হে দেবতা পথ ভোলা।।

সেথা নাহি কুল-লাজ, কলংক ভয়,
নাহি গুরুজন গঞ্জনা নিরদয় ।।
তাই গোপন মানস তমাল কুঞ্জে
বাঁধিয়াছি ঝুলন দোলা।।

মোর অন্তরে বহে সদা অন্তঃসলিলা অশ্রু নদী,
সেই যমুনার তীরে কর তুমি লীলা নিরবধি ।।
সে মিলন মন্দিরে জাগাবেনা কেহ,
তব দেহে বিলীন হবে মোর দেহ,
অনন্ত বাসর শয্যা রচিয়া অনন্ত মিলনে রহিবো উতলা।।

বাহির দুয়ার মোর বন্ধ হে প্রিয়,
মনের দুয়ার আজি খোলা,
সেই পথে এসো হে মোর চিতচোর,
হে দেবতা পথ ভোলা।।

দেশাত্মবোধক গান

ও আমার সোনার স্বদেশ ভুমি

ও আমার সোনার স্বদেশ ভুমি।
আছ স্বপনে আর চেতনে।
আজ মুগ্ধ আমার মন তাই অন্ধ দু’নয়ন।।

পাহাড়ের নীল চূড়াতে রঙ ছড়াতে
উদাস মেঘের দল
রোদের আলোয় সোনার আভা ছড়ায় অবিরল

(যদি) সে রঙ মাখি নিজের মনে। জাগে শিহরণ।।

সাগরের ঢেউ ছুটে যায় দমকা হাওয়ায় উঠে মাতাল ঝড়
ভাঙ্গা বুকে গড়ে আবার নতুন করে ঘর।

(এমন) উতল ঝড়ে ভেঙ্গেও তবু। আশায় জাগে মন।।

দেশাত্মবোধক গান

সবুজের বুকে লাল, সে তো উড়বেই চিরকাল

উৎপেতে থাকা শেয়াল শকুন
উৎপেতে থাকা হায়না
ধবংসের খেলা খেলে চলে যায় যারা
মানুষের ভালো চায়না
তাদের জন্য সদা জাগ্রত সতর্ক চোখ রাখা
স্বাধীন দেশেই উড়বে যেনো স্বাধীন পতাকা ।।
সবুজের বুকে লাল, সে তো উড়বেই চিরকাল ।।

দোয়েলের গান ফসলের ঘ্রান রূপালী জোছনা রাত
এলোমেলো করে দিতে চায় যদি আশুভ কালো হাত ।।
বায়ান্ন আর একাত্তরের চেতনায় আছি মাখা
স্বাধীন দেশেই উড়বে যেনো স্বাধীন পতাকা ।।
সবুজের বুকে লাল, সে তো উড়বেই চিরকাল ।।

হাতে হাত ধরে একসাথে লড়ে রুখবোই সন্ত্রাস
এদেশের বুকে সুন্দর আর সত্যের হবে বাস ।।
এ শপথ নিয়ে তাই আমাদের প্রস্তুত হয়ে থাকা
স্বাধীন দেশেই উড়বে যেনো স্বাধীন পতাকা ।।
সবুজের বুকে লাল, সে তো উড়বেই চিরকাল ।।

উৎপেতে থাকা শেয়াল শকুন
উৎপেতে থাকা হায়না
ধবংসের খেলা খেলে চলে যায় যারা
মানুষের ভালো চায়না
তাদের জন্য সদা জাগ্রত সতর্ক চোখ রাখা
স্বাধীন দেশেই উড়বে যেনো স্বাধীন পতাকা ।।
সবুজের বুকে লাল, সে তো উড়বেই চিরকাল ।।