ব্যান্ড

বিনিদ্র হাজার বছর

বিনিদ্র হাজার বছর
তোমার মুখখানি দেখে দেখে
যখন আমি নিলাম একে
চেয়ে দেখি এ তো সেই মুখ নয়
বলনা কেন এমন হয় (২)

ক্লান্তিহীন কত সময় ধরে
তোমার সাথে চলে এসে ঘরে
পাশে দেখি এ তো সেই তুমি নয়
মিথ্যে হল সব পরিচয় (২)

রাত্রিদিন কত আশায় থেকে
হাজার নামে চুপিসারে ডেকে
বারেবারে কেন এই সংশয়
কেন স্বপ্ন এত মুধুময় (২)

ব্যান্ড

প্রেমেই মুক্তি

প্রেমেই মুক্তি বন্ধু ওরে
প্রেমেই বাড়িঘর
প্রেমের মাঝেই বন্দি জগত
বান্দা ও ঈশ্বর
প্রেমিক পুরুষ হয়রে ভালো
হয়না স্বার্থপর (২)

প্রেমের টানে নৌকা চলে
নদীর কূলে কূলে
প্রেমের টানে প্রজাপতি
উড়ছে ফুলে ফুলে (২)
প্রেমেই জীবন প্রেমেই মরণ
নাই কিছু তারপর
প্রেমের মাঝেই বন্দি জগত
বান্দা ও ঈশ্বর
প্রেমিক পুরুষ হয়রে ভালো
হয়না স্বার্থপর (২)

নদীর কুলে জোয়ার আসে
চাদের আকর্ষণে
কোন কারণে হয়রে এমন
জানে সর্বজনে (২)
প্রেমের জন্য এই দুনিয়া
নারী এবং নর
প্রেমের মাঝেই বন্দি জগত
বান্দা ও ঈশ্বর
প্রেমিক পুরুষ হয়রে ভালো
হয়না স্বার্থপর (২)

ব্যান্ড

তুমি কত সুন্দর

তুমি কত সুন্দর যেনো সম্পুর্ণ একটা কবিতা
যাকে ছন্দে ছন্দে আবৃতি করা যায়
তুমি কত সুন্দর যেনো সম্পুর্ণ একটা চিত্র
যার রঙ্গে রঙ্গে মন রাঙ্গানো যায়

জীবনান্দের বনলতা সেঙ্কে
তোমার মাঝেই যেনো খুজে পাই
তোমার চোখে চোখ রাখলেই
কষ্টের শত জ্বালা ভুলে যাই
বাধ ভাঙ্গা নাবিকের ক্লান্তি নিয়ে
একটু সুখের আশায়
তোমার হৃদয়ে তাই
ফেলেছি নোঙ্গর
তুমি কত সুন্দর

ভিঞ্ছির তুলিতে আকা মোনালিসাকে
তোমার হাসির মাঝে খুজে পাই
হাসির রঙ্গে মন রাঙ্গাতে
স্বপ্নের দিকে আমি চলে যাই
রংধনু বিকেলের স্বপ্ন এনে
সাতটি রঙ্গের ছোয়ায়
তোমার হৃদয়ে চাই সাজাতে প্রহর
তুমি কত সুন্দর

ব্যান্ড

নীল নয়না

নীল নয়না বন্ধু আমার
জেনে রেখ এই আমি শুধু তোমার
আমাকেই কাছে ডেকো
তুমি আমারি থেকো

সারারাত জেগে থাকা নীল জোনাকি
আমিও তার ই মত জেগে একাকী
বসে বসে ভাবি একা নির্ঘুম রাত
আমাকেই কাছে ডেকো
তুমি আমারি থেকো

সারাক্ষন পাশে পাশে চাই তোমাকে
মায়াবী ছোয়া তুমি দিও আমাকে
পাও যদি সুখে ভরা স্বর্ণালী দিন
আমাকেই কাছে ডেকো
তুমি আমারি থেকো

ব্যান্ড

যদি পৃথিবীর সব আলো

যদি পৃথিবীর সব আলো নিভে যায়
যদি সাগরের সব জল শুকিয়ে যায়
আধার এ ভুবন ব্যথায় ভরা মন
নিয়ে ছুটে যাবো তোমারি কাছে
তুমি ফিরিয়ে দেবে না জানি আমাকে
মন ভাংবেনা জানি কোনো বেদনাতে

ক্লান্ত দেহ অসাড় এই মন
নীরব থেমে গেছে সব আয়োজন
সবাই ফিরিয়ে দেবে জানি একদিন
সে কষ্টগুলো সে বেদনাগুলো
নিয়ে ছুটে যাবো তোমারি কাছে
তুমি ফিরিয়ে দেবে না জানি আমাকে
মন ভাংবেনা জানি কোনো বেদনাতে

স্বপ্ন কাদে বুকের ও ভিতর
কষ্টে ডুবে আছি কাটেনা প্রহর
গোধুলী পেরিয়ে জানি আসবে সকাল
সে বিষাদে ঢাকা নীল স্বপ্নগুলো
নিয়ে ছুটে যাবো তোমারি কাছে
তুমি ফিরিয়ে দেবে না জানি আমাকে
মন ভাংবেনা জানি কোনো বেদনাতে

ব্যান্ড

নীরবে নিভৃতে

নীরবে নিভৃতে হারালে কখন বোঝেনি এ মন
খুজেছি তোমায় কত ঠিকানায় (২)
ক্লান্ত দুপুরবেলায় হারালে কোথায়

জীবনের পথে এসে সরল বিশ্বাসে
মিশে গিয়েছিলে কি নিবিড় আশ্বাসে (২)
সাজিয়ে দিয়ে তুমি সোনালী সকাল (২)
ক্লান্ত দুপুরবেলায় হারালে কোথায়

হৃদয়ের কঠরে একমুঠো যন্ত্রণা
নিয়ে বেচে আছি তুমি ফিরে দেখলেনা (২)
স্বার্থের কারণে হারালে কোথায় (২)
ক্লান্ত দুপুরবেলায় হারালে কোথায়

ব্যান্ড

কোন কোন সময়

কোন কোন সময় এত ইচ্ছে হয়
দেখা করি তোমার সাথে
ভাগ্য আমার এত নিষ্ঠুর তাই
দেখা হয়না তোমার সাথে
অনেক সময় বড় ইচ্ছে হয়
কথা বলি তোমার সাথে
কপাল আমার বড় নির্মম তাই
কথা হয়না তোমার সাথে
তবু জানিয়ে দিলাম
দেখা হবে রাজপথে
আর কথা হবে মিছিলে

রাত জেগে বসে আছি একাকী একাকী
চোখে ঘুম আসেনা আসেনা
এভাবে জীবন আমার
কেন হল এলোমেলো
তবু জানিয়ে দিলাম
দেখা হবে রাজপথে
আর কথা হবে মিছিলে

সুখে দুঃখে ভেবেছি তোমাকে তোমাকে
বুকে বড্ড যন্ত্রণা যন্ত্রণা
একাকী জীবন আমার
কেটে গেল অবহেলায়
তবু জানিয়ে দিলাম
দেখা হবে রাজপথে
আর কথা হবে মিছিলে

ব্যান্ড

জীবনের যত সুখে দুঃখে

মাঝে মাঝে অনেক রাতে কেন জানি ঘুম ভেঙ্গে যায়
উদাসী এই মনের আকাশ বেদনার মেঘ ঢেকে যায়
জীবনের যত সুখে দুখে মিশে আছো তুমি এই বুকে
সেই তোমাকেই বড় অচেনা মনে হয়

চাওয়া আর পাওয়াতে নেই কোন ব্যবধান
ফেরারী জীবনে দিয়েছো পিছুটান
তবু যে এ পথ ঢেকে যায় কুয়াশায়
জীবনের যত সুখে দুখে মিশে আছো তুমি এই বুকে
সেই তোমাকেই বড় অচেনা মনে হয়

হিমেল অনলে পুড়ে যায় এ হৃদয়
আবেশী এই সময় মৌনতা ঘিতে রয়
সাজানো এ জীবন দুবে রয় হতাশায়
জীবনের যত সুখে দুখে মিশে আছো তুমি এই বুকে
সেই তোমাকেই বড় অচেনা মনে হয়

ব্যান্ড

নীল চোখ

নীল চোখে চোখ আমি রেখেছি
সাত রঙে মনে ছবি আমি এঁকেছি
তার চোখ ভরে জাদু আমি দেখেছি
যেন স্বর্গের কাছাকাছি এসেছি
কি মায়া সেই চোখে
আমি তো বুঝিনা

হয় সিক্ত নীলাম্বরী
তাহার মধুমাখা মুখচন্দন
এলোমেলো কেশ যেনো
আকাশের সাথী হয় চন্দ্র
সে যে রুপে অপরুপা
কোনো কবির কল্পনা

সাত রঙে মনে ছবি আমি এঁকেছি
তার চোখ ভরে জাদু আমি দেখেছি
যেন স্বর্গের কাছাকাছি এসেছি
কি মায়া সেই চোখে
আমি তো বুঝিনা

সে যে ছন্দের তালে তালে
পাহড়ী নৃত্যে নেচে চলে
গুনগুন সুরে সুরে
হৃদয়ের কথা বলে
তার সুরের লহরে
এই মন দিশেহারা

ব্যান্ড

সুন্দর ধরনী

এই সুন্দর ধরনী জুড়ে
আসে কত কি নতুন সুরে
আসে অবাক মনের দুয়ারে
কত মধুময় সুন্দর ছন্দ
জীবনতো পাহাড়টা ঘিরে
সাজানো আছে ভরে ভরে
কত হৃদয় ছোয়ানো মেলা
আর পাগল করা সেই খেলা
আমি জেনেছি ওই পাহাড়ে
কোনো বিরহ আসতে পারেনা
আমি জেনেছি ওই পাহাড়ে
কোনো কলঙ্ক থাকতে পারেনা

আমি জেনেছি ওই পাহাড়ে
কোনো কলঙ্ক থাকতে পারেনা

ব্যান্ড

প্রিয় ঠিকানা

সকালের আকাশে মেঘের আসর
বিষণ্ণ চাদ ই ধুসর আভা
মৌন আমি কান পেতে শুনি
বৃষ্টির গান রিমঝিম ধারা

শহর জড়ানো বৃষ্টির চাদর
দেখি ব্যস্ত মানুষ কত দিকে যায়
মনের খাতায় আজ অনেক আসর
কেমন ছিলাম আমি এলাম কোথায়

সকালের আকাশে মেঘের আসর
বিষণ্ণ চাদ ই ধুসর আভা
মৌন আমি কান পেতে শুনি
বৃষ্টির গান রিমঝিম ধারা

পরিচিত মুখেরা উকি দিয়ে যায়
বারবার ডাকে সেই প্রিয় ঠিকানায়
ভালোবাসা সীমাহীন নি:স্বঙ্গ প্রতিদিন
না দেখার ব্যথাটা বাড়ায়

ব্যান্ড

সোনার মেয়ে

ওগো সোনার মেয়ে
বলনা কি পেয়েছো
হৃদয় খুলে আপন ভুলে
ভালো কি বেসেছো
বলনা কি পেয়েছো

চোখেতে এনেছো আকাশের নীল
মনেতে এনেছো হৃদয়ের মিল
হৃদয় খুলে কন্ঠে সুরে
কত কথা এনে
আমার এই মন নিয়েছো

ওগো সোনার মেয়ে
বলনা কি পেয়েছো
হৃদয় খুলে আপন ভুলে
ভালো কি বেসেছো
বলনা কি পেয়েছো

হৃদয়ে দিয়েছো আবাগের সুর
রংধনু রঙ্গে মিষ্টি মধুর
হৃদয় খুলে মুক্ত হাসিতে
ভালোবাসা দিয়ে
আমার এই মন নিয়েছো

ব্যান্ড

এই মনটারে

এই মন্টারে ডানা মেলে দিয়েছি
তার চোখে চোখ রেখে আমি চেয়েছি
আমি তার কিছু পাবো কি না (২)
আমি তা জানিনা, আমি তা বুঝিনা
জানিনা

রাতের ওই আধারেতে
একা একা বসে ভাবি
সময় তো যেনো আর কাটেনা
আমি সুরে সুরে কত গান গেয়েছি
আর এই মন্টাকে আমি দিয়েছি

আমি তার কিছু পাবো কি না (২)
আমি তা জানিনা, আমি তা বুঝিনা
জানিনা

রাতের ওই তারাগুলো
কি জানি কি সেজেছে
তারা যদি ফুল হয় ফুল হোক না
আমি সুরে সুরে কত গান গেয়েছি
আর এই মন্টাকে আমি দিয়েছি

আমি তার কিছু পাবো কি না (২)
আমি তা জানিনা, আমি তা বুঝিনা
জানিনা

ব্যান্ড

যেতে চাই আমি ওই নিরালায়

যেতে চাই আমি ওই নিরালায়
যেখানে গাংচিল উড়ে যায়
মন ছুটে যায় দুরে কোথায়
যেখানে মনে হয় যেনো সব ছবি
হৃদয়ে জন্ম নেয় নতুন এক কবি

যেখানে পাহাড়ে ঝরণার সুর বাজে
সাগরে চাদ এসে চুমু দেয় লাজে (২)
যেতে চাই আমি ওই দুরে
মন মেতে ওঠে সেই সুরে (২)

যেখানে মনে হয় যেনো সব ছবি
হৃদয়ে জন্ম নেয় নতুন এক কবি

যেখানে রংধনু রঙ্গে রঙ্গে ছবি আকে
সুর্য হারায় যেথায় মেঘের ও ফাকে(২)
রংধনু রং ছবি হয়ে
চেনা সুরে মন ওঠে গেয়ে

যেখানে মনে হয় যেনো সব ছবি
হৃদয়ে জন্ম নেয় নতুন এক কবি

ব্যান্ড

স্বপ্নে আকা ছবি

স্বপ্নে আকা ছবি
বহে নিরবধি নিলীমায়
মন বলেছে সে দোলা দিয়ে যায়
আমার হৃদয় যেনো তোমাকে যে চায়
যেওনা তুমি অজানায়

দৃষ্টির সীমানাতে এসেছো যে তুমি
তাই খুজে পেয়েছি তোমায়
জোছনার আলো বুকে রেখেছো যে ধরে
তাই বুঝি চাদ হেরে যায় (২)
আমিও হেরে যাবো তুমি না এলে
যেওনা তুমি অজানায়

অন্তবিহীন পথ শুধু হেটে চলা
মিশে আছে নীরবতায়
জমে আছে হৃদয়ের ও না বলা কথা
বল বো ডেকে যে তোমায় (২)
সেই তুমি এসে কাছে দুরে চলে যাও
যেওনা তুমি অজানায়