আধুনিক

বেদনার সবটুকু

বেদনার সবটুকু আমাকে দিয়ে
সুখ নিয়ে তুমি ফিরে যাও
তুমি সুখে থাকলে আমি সুখে থাকবো
বলব না ভালবাসা দাও।

শয্যায় বসে বসে গুণব মরণের দিন
ভুল কি ভাঙবে না তোমার কোনদিন
জানি, চিরকাল বিমূঢ় হয়ে দুঃখই পেয়ে যাব।

মনের অগোচরে কোন কথা থাকলে বলিও
কোন কলি থাকলে তাকে ফুটতে দিও
ভাবতে অবাক লাগে তুমি বদলে গেছ।

ব্যান্ড

শেষ দেখা

যে তুমি কথা রাখ নি
কি লাভ এতদিন পর এই আমার কাছে এসে
ভুল ভেঙে অবশেষে
আমি তো আজ শুধু আমার
বুকে ব্যথার নিয়ে পাহাড়
আমার সমাধীর পর আমি চাই নাতোমার উপহার
নিষ্প্রাণ দেহের কাছে তুমি রেখো না তোমার অধিকার।

ছিঁড়ে গেছে গীটারের তার বাজবে না সুর তাতে আর
বুঝেও কি বোঝ নি
নতুন প্রণয় মিছিলে তুমি সেদিন হেসেছো
মনে আছে ভুলি নি
সে কথা আজ মনে করে ব্যথা পেতে চাই না আর
আমি তো আজ শুধু আমার বুকে ব্যথার নিয়ে পাহাড়।

জীবনের যোগ বিয়োগে অনেক কিছুই হারিয়ে
কি পেয়েছি জানি না
মেলাতে হিসাব গিয়ে তার ব্যর্থ হয়েছি বারেবার
কিছুতে যা পারি না
যে ক্ষতি হায় করে গেছো ক্ষত বুকে রয়েছে তার।

জীবনমুখী গান

মানুষ মানুষের জন্য

মানুষ মানুষের জন্য
জীবন জীবনের জন্য
একটু সহানুভূতি কি মানুষ পেতে পারে না
ও বন্ধু….

মানুষ মানুষকে পণ্য করে
মানুষ মানুষকে জীবিকা করে
পুরনো ইতিহাস ফিরে এলে লজ্জা কি তুমি পাবে না?
ও বন্ধু………..

বল কি তোমার ক্ষতি
জীবনের অথৈ নদী
পার হয় তোমাকে ধরে দূর্বল মানুষ যদি
মানুষ যদি সে না হয় মানুষ
দানব কখনো হয় না মানুষ
যদি দানব কখনো বা হয় মানুষ লজ্জা কি তুমি পাবে না?
ও বন্ধু……….

ব্যান্ড

আবার দেখা হবে

বোঝাতে কি পেরেছি তোমাকে যে তা
বিরহে নিহিত সেই শোক বারতা
যখন আমি থাকব না তোমার কাছে
আমায় পাবে গীতিকবিতা মাঝে
যাবার বেলায় শুধু সান্তনা নয় কান্না
আবার দেখা হবে এখনি শেষ দেখা নয়
আবার কথা হবে এখনি শেষ কথা নয়

অশ্রু মুছে তুমি তাকাবে
মনকে আলোকিত করবে
তোমার অশ্রু আমায় দূর্বল করে দেয়।

হৃদয়ের না বলা কথা
সে আমার না লেখা বারতা
মেঘকে দূত করে পাঠাব কখনো তোমায়।

ব্যান্ড

আমি ভুলব না তোমাকে

বিস্ময় ছিলে তুমি স্বপ্ন আমার
কাছে পাব না জানি তোমাকে তো আর
কাটতো সময় কত গল্প করে
বলতে ভালবাসি হাতটি ধরে
আমি ভুলব না, আমি ভুলব না আমি ভুলব না তোমাকে।
আমি ভুলব না, আমি ভুলব না, আমি ভুলব না তোমাকে।

স্বপ্ন প্রহরগুলো মনে পড়ে যায়
সোনালী আবেগ কাছে ডাকতো আমায়
স্মৃতিগুলো আজ শুধু আবেশে জড়ায়
ব্যর্থ এ মন শুধু আমাকে কাঁদায়।
আমি ভুলব না, আমি ভুলব না আমি ভুলব না তোমাকে।

প্রেম কি ছিল না ছিল শুধু প্রহসন
চেয়েছি নিবিড় করে শুধু অকারণ
তোমারই ছবি মনে তুমি পাশে নেই
অন্যের হয়ে গেলে খুব সহজেই
কেন থাকলে না, কেন থাকলে না কেন থাকলে না আমার হয়ে
আমি ভুলব না, আমি ভুলব না, আমি ভুলব না তোমাকে।

দিশেহারা হয়ে পড়ে আছি তবু
পারি নি মেনে নিতে ভুলে যাবে কভু
চলে গেল কেন একা ফেলে আমাকে

তোমার অবুঝ মন বুঝেনি তখন
হয়ত পারি নি হতে তোমারই মতন
হৃদয়মাঝে স্মৃতি চিহ্ন রেখে
প্রেমের সমাধি মনে গেলে যে এঁকে
আমি ভুলব না, আমি ভুলব না, আমি ভুলব না তোমাকে।

ব্যান্ড

বাংলাদেশ

তুমি মিশ্রিত লগ্ন মাধুরীর জলে ভেজা কবিতায়
আছো সারোয়ার্দী, শেরেবাংলা, ভাসানীর শেষ ইচ্ছায়
তুমি বঙ্গবন্ধুর রক্তে আগুন জ্বালা জ্বালাময়ী সে ভাষণ
তুমি ধানের শীষে মিশে থাকা শহীদ জিয়ার স্বপন
তুমি ছেলেহারা মা জাহানারা ইমামের একাক্তরের দিনগুলি
তুমি জসিম উদদীনের নকশী কাথার মাঠ, মুঠো মুঠো সোনার ধুলি
তুমি তিরিশ কিংবা তার অধিক লাখো শহীদের প্রাণ
তুমি শহীদ মিনারের প্রভাতফেরী, ভাইহারা একুশের গান
আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি
জন্ম দিয়েছো তুমি মাগো, তাই তোমায় ভালোবাসি
আমার প্রাণের বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি
প্রাণের প্রিয় মাগো তোকে, বড় বেশী ভালোবাসি………

তুমি কবি নজরুলের বিদ্রোহী কবিতা, উন্নত মম শির
তুমি রক্তের কালিতে লেখা নাম, সাত শ্রেষ্ঠ বীর
তুমি সুরের পাখি আব্বাসের দরদভরা সেই গান
তুমি আব্দুল আলীমের সর্বনাশা পদ্নানদীর টান
তুমি সুফিয়া কামালের কাব্যভাষায় নারীর অধিকার
তুমি স্বাধীন বাংলা বেতারকেন্দ্রের শাণিত ছুরির ধার
তুমি জয়নুল আবেদীন, এস এম সুলতানের রংতুলির আঁচড়
শহীদুল্লাহ কায়সার, মুনির চৌধুরীর নতুন দেখা সেই ভোর
আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি
জন্ম দিয়েছো তুমি মাগো, তাই তোমায় ভালোবাসি
আমার প্রাণের বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি
প্রাণের প্রিয় মাগো তোকে, বড় বেশী ভালোবাসি………..

তুমি বিস্মৃত লগ্নমাধুরীর জলে ভেজা কবিতায়
তুমি বাঙ্গালীর গর্ব, বাঙ্গালীর প্রেম, প্রথম ও শেষ ছোঁয়ায়
তুমি বঙ্গবন্ধুর রক্তে আগুন জ্বালা জ্বালাময়ী সে ভাষণ
তুমি ধানের শীষে মিশে থাকা শহীদ জিয়ার স্বপন
তুমি একটি ফুলকে বাঁচাবো বলে বেজে ওঠো সুমধুর
তুমি রাগে অনুরাগে মুক্তিসংগ্রামে সোনাধরা সেই রোদ্দুর
তুমি প্রতিটি পঙ্গু মুক্তিযোদ্ধার অভিমানের সংসার
তুমি ক্রন্দন, তুমি হাসি, তুমি জাগ্রত শহীদ মিনার
আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি
জন্ম দিয়েছো তুমি মাগো, তাই তোমায় ভালোবাসি
আমার প্রাণের বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি
প্রাণের প্রিয় মাগো তোকে, বড় বেশী ভালোবাসি……..

আধুনিক

মনের জানালা ধরে

মনের জানালা ধরে উঁকি দিয়ে গেছে
যার চোখ তাকে আর মনে পড়ে না।

চেয়ে চেয়ে কত রাত দিন কেটে গেছে
আর কোন চোখ তবু মনে ধরে না।

হৃদয়ের শাখা ধরে নাড়া দিয়ে গেছে
ঝুরঝুর ঝরে গেছে কামনার ফুল।

মালা গেথে কবে থেকে নিয়ে বসে আছি
আবার কখনও যদি করে সেই ভুল
ভুলেও কভু তো সে ভুল করে না।।

যেতে যেতে গানখানি পিছে ফেলে গেছে
ছমছম নুপূরের সকরুণ সুর।

শিকলে বাধিতে তারে চেয়েছিনু বুঝি
শিকল চরণে তার হয়েছে নুপূর
ধরার বাধনে সে তো ধরা পড়ে না।।

ছায়াছবি

কেন দূরে থাক

কেন দূরে থাক
শুধু আড়াল রাখ
কে তুমি কে তুমি আমায় ডাক?
কেন দূরে থাক?

মনে হয় তবু বারে বারে
এই বুঝি এলে মোর দ্বারে
সে মধুর স্বপ্ন ভেঙ্গো না কো

ভাবে মাধুরী সুরভী তার বিলায়ে
যাবে মধুপের সুরে সুর মিলায়ে

তোমারি ধ্যায়ানে ক্ষণে ক্ষণে
কত কথা জাগে মোর মনে
চোখে মোর ফাগুনের ছবিটি আঁকো।

আধুনিক

খুব জানতে ইচ্ছে করে

খুব জানতে ইচ্ছে করে
খুব জানতে ইচ্ছে করে
তুমি কি সেই আগের মতই আছ
নাকি অনেকখানি বদলে গেছ।

এখনো কি প্রথম সকাল হলে
স্নানটি সেরে পূজার ফুল তুলে
পূজার ছলে আমারই কথা ভাব বসে ঠাকুর ঘরে
জানতে ইচ্ছে করে।

এখনো কি সন্ধ্যেবেলা আমার বাড়ি ফেরার সময় পেরিয়ে গেলে
অনেক অভিমানে চোখ দুটো কি জলে ভরে?

এখনো কি রাত নিঝুম হলে
শরৎ কাহিনী পাশে খোলা পড়ে থাকে
আকুল পিয়াসে আমারই তিয়াষে অন্তর কেঁদে মরে
খুব জানতে ইচ্ছে করে।