আধুনিক

শ্রাবণের মেঘ ঝুলে আছে বিষন্ন বিকেল বেলা

শ্রাবণের মেঘ ঝুলে আছে
বিষন্ন বিকেল বেলা।
শেষ কথা যাও বলে যাও
শেষ কর এই ছায়াখেলা
বিষন্ন বিকেল বেলা।।

আমি আজ বসে আছি একা
জমে আছে কত কথা।
উকি দেওয়া এই বরষা
কিছু তার বুকে নিয়ে ভেসে যায় মেঘমালা।।

ভিজে হাওয়া সংবাদ আনছে
দূরে কোথাও বৃষ্টি।।
সফর নিশায় তুমি চুপ
জানি তাই বুকে বাজে এ সময় অবহেলায়।।

আধুনিক

ও পলাশ ও শিমুল

ও পলাশ ও শিমুল
কেন এ মন মোর রাঙালে
জানিনা জানিনা
আমার এ ঘুম কেন ভাঙালে

যার পথ চেয়ে দিন গুনেছি
আজ তার পদধ্বনি শুনেছি।

ও ও বাতাস
কেন আজ বাঁশি তব বাজায়ে
দিলে তুমি এ হৃদয় সাজায়ে।।

যায় বেলা যাক না
আঁখি দুটি থাক না
সুন্দর স্বপ্নে মগ্ন
যেন এল আজ সেই শুভলগ্ন।

এ জীবনে যতটুকু চেয়েছি
মনে হয় তারও বেশি পেয়েছি।

ও ও আকাশ
কেন আজ এত আলো ছড়ায়ে
আমারে যে দিলে তুমি ভরায়ে।।

আধুনিক

নীলা

নীলা কেন চোখ দু’টি আঁখি জলে উঠেছে ভরে
রূপসী নীলা কেন চোখ দু’টি আঁখি জলে উঠেছে ভরে
রূপসী নীলা, নীলা, নীলা, নীলা।।

দিয়েছে কে তোমায় ও মনে ব্যাথা
কাঁটা হয়ে বিধেছে কী কারো কথা।

কাছে এসো তুমি মেয়ে মুছে দিব আঁখি পারা
চলে যাবে তখনই যত বেদনা, নীলা

যেখানেই থাকি আমি যত দূরে
আধার এলে ডেকো চেনা সেই সুরে।

মন রেখো ওগো মেয়ে, সারা দেবো আমি এসে
ভুলে যাবে কখনই যত বেদনা।।

আধুনিক

সুমনা মনের মেয়েটি

সুমনা মনের মেয়েটি নামটিও সুমনা।
সেই মনেতে তোমরা কেউ কোনদিন দুঃখ দিও না।।

নির্মলা হাসি তার মুক্তো ছড়ানো
দীঘল কালো কেশে কিযে মায়া ছড়ানো।
সেই মায়াবিনীর মুগ্ধ হাসি কেড়ে নিও না।।

চঞ্চলা দেহে তার ছন্দ লুকানো
বাংলারই মেয়ে আমার মনটি হারলো।
আর আদুরিনী সাগর চোখে দৃষ্টি দিও না।।

আধুনিক

জীবনের কিছু কথা থাকে

জীবনের কিছু কথা থাকে
যা কোনদিন বলা হয় না।

বলতে পারলে জীবন ধারা
অন্য রকম হতে পারতো।।

লতার মত বেড়ে ওঠা কিছু আবেগ
সঙ্গোপনে কখন যেন হয়ে যায় মেঘ।

হৃদয়ের কিছু দুয়ার থাকে
যা কোনদিন খোলা যায় না।।

নদীর মতো বয়ে চলা রূপালী মন
কেউ জানে না হারায় সে সে কোথায় কখন।

দু’চোখের কিছু জ্বালা থাকে
যা কোনদিন ভোলা যায় না।।

আধুনিক

আমি ঝড়ের কাছে রেখে গেলাম আমার ঠিকানা

আমি ঝড়ের কাছে রেখে গেলাম আমার ঠিকানা।
আমি কাঁদলাম বহু হাসলাম এই জীবন জোয়ারে ভাসলাম
আমি বন্যার কাছে ঘূণীর কাছে রাখলাম নিশানা।।

কখন জানিনা সে তুমি আমার জীবনে এসে
যেন স্বঘন শ্রাবনে প্লাবনে দুকূলে ভেসে
শুধু হেসে ভালোবেসে

যতো যতো নেশা যেন স্বপ্ন হলো সকলি নিমেষে ভগ্ন
আমি দূর্বার স্রোতে ভাসলাম তরী অজানা নিশানা।।

ওগো ঝড়া পাতা যদি আবার কখনো ডাকো
সেই শ্যামল হারানো স্বপ্ন মনেতে রাখো
যদি ডাকো যদি ডাকো।।

আমি আবার কাঁদবো হাসবো এই জীবন জোয়ারে ভাসবো
আমি বজ্রের কাছে মৃত্যুর মাঝে রেখে যাবো নিশানা।।