ব্যান্ড

এই রাত

ছলনার বালুচরে
বুঁনেছি আমি
একটি স্বপ্ন
জ্বালিয়েছি শিখা
এই পূর্ণিমায়
এই রাত তোমার
আমার……..
এই রাত আর কারো নয়।
এই রাতে জন্ম নেবে
তোমার আমার একটা নি:শ্বাস
এই রাতে ছুঁয়ে যাবে
তোমার আমার সকল উচ্ছাস
এই রাতে ছুঁয়ে যাবে
এই রাত তোমার
আমার……..
এই রাত আর কারো নয়।

বুকেরই চিলেকোঠায়
বেঁচে আছি নীরবে আমি
জেগে আছি আজ ও
সেই চেনা পথ ধরে
এই রাত তোমার
আমার……..
এই রাত আর কারো নয়।
আ লা লা লা

এই রাতে সাজিয়ে দেব
আঁধার রাতের জোনাকির আলোয়
এই রাতে হারিয়ে যাব
তোমার আমার এই পথচলায়
এই রাত তোমার
আমার……..
এই রাত আর কারো নয়।

ব্যান্ড

পদ্ম পাতার জল

কবিতা, তুমি স্বপ্নচারিনী হয়ে খবর নিও না
কবিতা, এই নিশাচর আমায় ভেবোনা সুখের মোহনা।
দেখবে আমাদের ভালবাসা হয়ে গেছে কখন যেন
পদ্ম পাতার জল। (2)
কবিতা, তুমি স্বপ্নচারিনী হয়ে খবর নিও না
কবিতা, এই নিশাচর আমায় ভেবোনা সুখের মোহনা।

বেদনাসিক্ত অশান্ত এই মন
খুঁজে ফেরে মেটায় প্রয়োজন
যতদূর জানে এ ব্যাকুল হৃদয়
নীল বিষের পেয়ালা মনের বাঁধন।
বেদনাসিক্ত অশান্ত এই মন
খুঁজে ফেরে মেটায় প্রয়োজন
যতদূর জানে এ ব্যাকুল হৃদয়
নীল বিষের পেয়ালা মনের বাঁধন।
দেখবে আমাদের ভালবাসা হয়ে গেছে কখন যেন
পদ্ম পাতার জল। (2)
কবিতা, তুমি স্বপ্নচারিনী হয়ে খবর নিও না
কবিতা, এই নিশাচর আমায় ভেবোনা সুখের মোহনা।

নয়ন গভীরে আঙ্গিনা
নিবিড়তার ছোঁয়ায় হৃদয় প্রতিমা
কোথায় হারালে বল পাব তোমায়
বসন্তে মাতাল আমি এক অপূর্ণতা।
নয়ন গভীরে আঙ্গিনা
নিবিড়তার ছোঁয়ায় হৃদয় প্রতিমা
কোথায় হারালে বল পাব তোমায়
বসন্তে মাতাল আমি এক অপূর্ণতা।
দেখবে আমাদের ভালবাসা হয়ে গেছে কখন যেন
পদ্ম পাতার জল। (2)

কবিতা, তুমি স্বপ্নচারিনী হয়ে খবর নিও না
কবিতা, এই নিশাচর আমায় ভেবোনা সুখের মোহনা।
দেখবে আমাদের ভালবাসা হয়ে গেছে কখন যেন
পদ্ম পাতার জল। (3)

ব্যান্ড

দুখিনী দুঃখ করো না

চেয়ে দেখ উঠেছে নতুন সূর্য
পথে পথে রাজপথে চেয়ে দেখ রঙের খেলা
ঘরে বসে থেকে লাভ কি বল
এসো চুল খুলে পথে নামি
এসো উল্লাস করি…
দু:খিনি দু:খ করোনা…….দু:খিনি.. দু:খিনি।

আঁধারের সিঁদ কেটে আলোতে এসো
চোখের বোরখা নামিয়ে দেখ জোছনার গালিছা
ঘর ছেড়ে তুমি বাইরে এসো
চেয়ে রংধনু চেয়ে দেখ সাতরং
দু:খিনি দু:খ করোনা…….দু:খিনি.. দু:খিনি।

মিছিলের ভীড় ঠেলে সামনে এসো
দু:খের পৃষ্টা উল্টে দেখ স্বপ্নের বাগিছা
ঘরে বসে থেকে লাভ কি বল
এস হাতে হাত রাখি
এসো গান করি।
দু:খিনি দু:খ করোনা…….দু:খিনি.. দু:খিনি।

রা….রা…..রা
রারারা…..রা..

দু:খিনি দু:খ করোনা…….দু:খিনি.. দু:খিনি।
দু:খিনি দু:খ করোনা…….দু:খিনি.. দু:খিনি।

ব্যান্ড

লিখতে পারি না

লিখতে পারিনা কোন গান আজ তুমি ছাড়া
ভাবতে পারিনা কোন কিছু আর তুমি ছাড়া।
কিযে যন্ত্রনা এই পথচলা।

বিরহ স্মৃতি তোমাকে ঘিরে তুমি জাননা।
লিখতে পারিনা কোন গান আজ তুমি ছাড়া
ভাবতে পারিনা কোন কিছু আর তুমি ছাড়া।
কিযে যন্ত্রনা এই পথচলা
বিরহ স্মৃতি তোমাকে ঘিরে তুমি জাননা।

হারানো দিনগুলিতে ছিলে তুমি জড়িয়ে
এই মনের সীমান্তে ছিল সুখ ছড়িয়ে
হারানো দিনগুলিতে ছিলে তুমি জড়িয়ে
এই মনের সীমান্তে ছিল সুখ ছড়িয়ে
কিযে যন্ত্রনা এই পথচলা
বিরহ স্মৃতি তোমাকে ঘিরে তুমি জাননা।।

আকাশে চাঁদ ছিল একা
পাহাড়ি ঝর্ণা ঝরা
তাদের মনেতে ব্যথা ছিল কিনা বুঝিনি
আকাশে চাঁদ ছিল একা
পাহাড়ি ঝর্ণা ঝরা
তাদের মনেতে ব্যথা ছিল কিনা বুঝিনি
সে ব্যথা বুঝার আগে
হারিয়ে তোমাকে
তোমাকে হারিয়ে বেদনা ঝরেছে হৃদয়ে
কিযে বেদনা তুমি বোঝনা
তোমাকে ভুলে থাকা কোনদিন বুঝি হল না।।

ব্যান্ড

তের নদী সাত সমুদ্দুর

যেখানেই থাক তুমি যাও যতদূর
সেখানে পৌঁছে যাবে আমার সুর
যেখানেই থাক তুমি যাও যতদূর
সেখানে পৌঁছে যাবে আমার সুর
এই গান পাড়ি দেবে প্রয়োজনে
তের নদী সাত সমুদ্দুর।(2)

মেঘের বারণ ভুলে
যেখানে তুমার চুলে
খেলা করে এখনো দুপুর
মেঘের বারণ ভুলে
যেখানে তুমার চুলে
খেলা করে এখনো দুপুর
সেখানে পৌঁছে যাবে আমার সুর
এই গান পাড়ি দেবে প্রয়োজনে
তের নদী সাত সমুদ্দুর।(2)

যেখানে গভীর রাতে
হাতের পরশে হাতে
চুড়ি বাঁজে ঝানাঝানাঝুর
যেখানে গভীর রাতে
হাতের পরশে হাতে
চুড়ি বাঁজে ঝানাঝানাঝুর
সেখানে পৌঁছে যাবে আমার সুর
এই গান পাড়ি দেবে প্রয়োজনে
তের নদী সাত সমুদ্দুর।(2)

যেখানেই থাক তুমি যাও যতদূর
সেখানে পৌঁছে যাবে আমার সুর
যেখানেই থাক তুমি যাও যতদূর
সেখানে পৌঁছে যাবে আমার সুর
এই গান পাড়ি দেবে প্রয়োজনে
তের নদী সাত সমুদ্দুর।(2)

ব্যান্ড

ফুল নেবে না অশ্রূ নেবে বন্ধু

ফুল নেবে না অশ্রূ নেবে বন্ধু।
যদি ফুল ফিরিয়ে দাও
তবে দিতে পারি তোমায়
এই দুচোখের ভর উঠা জলধারা।।

যদি তুমি না আস এ হৃদয় গহীনে
নিঃস্বাসে লাভ কি?
বাঁচা কোন কারণে
দেরি নয় দেরি নয় সুন্দরীতমা
চিৎকার করে বল
ভাল নেই তুমি ছাড়া।।

শুধু তোমার সম্মতিতে
পৃথিবী আমার হাসে
বুঝবে সে জন শুধু
যে মানুষ ভালবাসে
দেরি নয় দেরি নয় সুন্দরীতমা
চি”কার করে বল
ভাল নেই তুমি ছাড়া।।

যদি ফুল ফিরিয়ে দাও
তবে দিতে পারি তোমায়
এই দুচোখের ভর উঠা জলধারা।।

ব্যান্ড

স্বপ্নহারা বিবেকের দুয়ারে

স্বপ্নহারা বিবেকের দুয়ারে
দাঁড়িয়ে থাকা আমি এক ক্লান্ত পথিক
স্বপ্নহারা বিবেকের দুয়ারে
দাঁড়িয়ে থাকা আমি এক ক্লান্ত পথিক
ইচ্ছের প্রান্তরে যতদুর দৃষ্টি যায়
চেয়ে থাকি শূণ্যতায়……….
স্বপ্নহারা বিবেকের দুয়ারে
দাঁড়িয়ে থাকা আমি এক ক্লান্ত পথিক।

আগামী দিনের একফোঁটা আশ্বাসে
পুরনো প্রেমিকার ভেঙ্গে দেওয়া বিশ্বাসে
জানা অজানার ভীরে পাথর সময়।
আগামী দিনের একফোঁটা আশ্বাসে
পুরনো প্রেমিকার ভেঙ্গে দেওয়া বিশ্বাসে
জানা অজানার ভীরে পাথর সময়।
ইচ্ছের প্রান্তরে যতদুর দৃষ্টি যায়
চেয়ে থাকি শূণ্যতায়……………..
স্বপ্নহারা বিবেকের দুয়ারে
দাড়িয়ে থাকা আমি এক ক্লান্ত পথিক।

বিরহী রাতে হৃদয়ের বন্দরে
পরাজিত কেউ একাকি কেঁদে ফেরে
সুখের পলি জলে চর পড়ে যায়।
বিরহী রাতে হৃদয়ের বন্দরে
পরাজিত কেউ একাকি কেঁদে ফেরে
সুখের পলি জলে চর পড়ে যায়।
ইচ্ছের প্রান্তরে যতদুর দৃষ্টি যায়
চেয়ে থাকি শূণ্যতায়……………..

স্বপ্নহারা বিবেকের দুয়ারে
দাড়িয়ে থাকা আমি এক ক্লান্ত পথিক।
ইচ্ছের প্রান্তরে যতদুর দৃষ্টি যায়
চেয়ে থাকি শূণ্যতায়……………..
স্বপ্নহারা বিবেকের দুয়ারে
দাড়িয়ে থাকা আমি এক ক্লান্ত পথিক।

ব্যান্ড

মা

দশমাস দশদিন ধরে গর্ভে ধারণ
কষ্টের তীব্রতায় করেছে আমায় লালন,
হঠা” কোথায় না বলে হারিয়ে গেল
জন্মান্তরের বাঁধন কোথা হারালো।
সবাই বলে ঐ আকাশে লুকিয়ে আছে
খুঁজে দেখ পাবে দুর নক্ষত্র মাঝে।
রাতের তারা আমায় কি তুই বলতে পারিস
কোথায় আছে কেমন আছে মা।
ওরে তারা রাতের তারা মা“কে জানিয়ে দিস
অনেক কেঁদেছি আর কাঁদতে পারিনা।

মায়ের কোলে শুয়ে হারানো সে সুখ
অন্য মুখে খুঁজে ফিরি সেই প্রিয়মুখ
অনেক ঋণের জালে মাগো বেঁধেছিলে তাই
বিষাদের অভয়ারণ্যে ভয় তবু পাই।
সবাই বলে ঐ আকাশে লুকিয়ে আছে
খুঁজে দেখ পাবে দুর নক্ষত্র মাঝে
রাতের তারা আমায় কি তুই বলতে পারিস
কোথায় আছে কেমন আছে মা
ওরে তারা রাতের তারা মাকে জানিয়ে দিস
অনেক কেঁদেছি আর কাঁদতে পারিনা।

সবাই বলে ঐ আকাশে লুকিয়ে আছে
খুঁজে দেখ পাবে দুর নক্ষত্র মাঝে
রাতের তারা আমায় কি তুই বলতে পারিস
কোথায় আছে কেমন আছে মা
ওরে তারা রাতের তারা মাকে জানিয়ে দিস
অনেক কেঁদেছি আর কাঁদতে পারিনা।

ব্যান্ড

এপিটাফ

যেদিন বন্ধু চলে যাব,
চলে যাব বহুদূরে….
ক্ষমা করে দিও আমায়,
ক্ষমা করে দিও।
মনে রেখ কেবল একজন ছিল
ভালবাসতো শুধুই তোমাদের
মনে রেখ কেবল………. তোমাদের।

চোরা সুরের টানে রে বন্ধু
মনে যদি উঠে গান,
গানে গানে রেখো মনে
ভুলে যেও অভিমান (2)
মনে রেখো কেবল……….তোমাদের (2)

ভরা নদীর বাঁকে রে বন্ধু
ঢেওয়ে ঢেওয়ে দোলে গান
চলে যেতে হবে ভেবে
কেঁদে উঠে মন প্রাণ (2)
মনে রেখো কেবল………. তোমাদের (2)

যেদিন বন্ধু…………………..