তোমায় কিছু দেব ব’লে চায় যে আমার মন
নাই-বা তোমার থাকল প্রয়োজন।।

যখন তোমার পেলেম দেখা, অন্ধকারে একা একা
ফিরতেছিলে বিজন গভীর বন।
ইচ্ছা ছিল একটি বাতি জ্বালাই তোমার পথে
নাই-বা তোমার থাকল প্রয়োজন।।

দেখেছিলেম হাটের লোকে তোমারে দেয় গালি
গায়ে তোমার ছড়ায় ধুলাবালি।

অপমানের পথের মাঝে তোমার বীণা নিত্য বাজে
আপন-সুরে-আপনি-নিমগন।

ইচ্ছা ছিল বরণমালা পরাই তোমার গলে
নাই-বা তোমার থাকল প্রয়োজন।।

দলে দলে আসে লোকে, রচে তোমার স্তব
নানা ভাষায় নানান কলরব।

ভিক্ষা লাগি তোমার দ্বারে আঘাত করে বারে বারে
কত-যে শাপ, কত-যে ক্রন্দন।

ইচ্ছা ছিল বিনা পণে আপনাকে দিই পায়ে,
নাই-বা তোমার থাকল প্রয়োজন।।