যতক্ষণ তুমি আমায় বসিয়ে রাখ বাহির-বাটে

যতক্ষণ তুমি আমায় বসিয়ে রাখ বাহির-বাটে
ততক্ষণ গানের পরে গান গেয়ে মোর প্রহর কাটে।।

যবে শুভক্ষণে ডাক পড়ে সেই ভিতর-সভার মাঝে
এ গান লাগবে বুঝি কাজে
তোমার সুরের রঙের রঙিন নাটে।।

তোমার ফাগুনদিনের বকুল চাঁপা, শ্রাবণদিনের কেয়া,
তাই দেখে তো শুনি তোমার কেমন যে তান দে’য়া।

আমি উতল প্রাণে আকাশ-পানে হৃদয়খানি তুলি
বীণায় বেঁধেছি গানগুলি
তোমার সাঁঝ-সকালের সুরের ঠাটে।।