তোমারই ঝরনা তলার নির্জনে
মাটির এই কলস আমার ছাপিয়ে গেল কোন্‌ ক্ষণে।

রবি ওই অস্তে নামে শৈলতলে,
বলাকা কোন্‌ গগনে উড়ে চলে–

আমি এই করুণ ধারার কলকলে
নীরবে কান পেতে রই আনমনে
তোমারি ঝরনাতলার নির্জনে।।

দিনে মোর যা প্রয়োজন বেড়াই তারি খোঁজ করে,
মেটে বা নাই মেটে তা ভাবব না আর তার তরে

সারাদিন অনেক ঘুরে দিনের শেষে
এসেছি সকল চাওয়ার বাহির-দেশে

নেব আজ অসীম ধারার তীরে এসে
প্রয়োজন ছাপিয়ে যা দাও সেই ধনে
তোমারই ঝরনাতলার নির্জনে।।