তরী আমার হঠাৎ ডুবে যায়
কোন্‌খানে রে
কোন্‌ পাষাণের ঘায়।।

নবীন তরী নতুন চলে,
দিই নি পাড়ি অগাধ জলে–
বাহি তারে খেলার ছলে
কিনার-কিনারায়।।

ভেসেছিলেম স্রোতের ভরে,
একা ছিলেম কর্ণ ধ’রে–
লেগেছিল পালের ‘পরে
মধুর মৃদু বায়।

সুখে ছিলেম আপন-মনে,
মেঘ ছিল না গগনকোণে–
লাগবে তরী কুসুমবনে
ছিলেম সেই আশায়।।