বর্ষণ মন্দ্রিত অন্ধকারে এসেছি তোমারি এ দ্বারে
পথিকেরে লহো ডাকি তব মন্দিরের এক ধারে।।

বনপথ হতে, সুন্দরী, এনেছি মল্লিকামঞ্জলী
তুমি লবে নিজ বেণীবন্ধে মনে রেখেছি এ দুরাশারে।।

কোনো কথা নাহি ব’লে ধীরে ধীরে ফিরে যাব চলে।
ঝিল্লিঝঙ্কৃত নিশীথে পথে যেতে বাঁশরিতে
শেষ গান পাঠাব তোমা-পানে শেষ উপহারে।।