প্রাণ সখিরে
ঐ শোন কদম্ব তলে বংশী বাজায় কে

বংশী বাজায় কে রে সখী
বংশী বাজায় কে।

আমার মাথার বেনী বদল দেব
তারে আইনা দে।

যে পথ দিয়ে বাজায় বাঁশি
যে পথ দিয়ে যায়।
সোনার নুপূর পরে পায়
আমার নাকের বেতর খুইলা দেব
সেই না পথের গায়
আমার গলার হার ছড়িয়ে দেব
সেই না পথের গায়
যদি হার জড়িয়ে পড়ে পায়।।

যার বাঁশি এমন সে বা কেমন
জানিস যদি বল
সখি করিস নাকো ছল
আমার মন বড় চঞ্চল

আমার প্রাণ বলে তার বাঁশি জানে
আমার চোখের জল
আমার মন বলে তার বাঁশি জানে
আমার চোখের জল।।

সরলা বাঁশের বাঁশি ছিদ্র গোটা ছয়
বাশী কতই কথা কয়

নাম ধরিয়া বাজায় বাঁশি
রহনও না যায়
ঘরে রহনও না যায়।।