আমি কৃষ্ণচূড়া হতাম যদি হতাম ময়ূর পাখা

আমি কৃষ্ণচূড়া হতাম যদি হতাম ময়ূর পাখা (সখা হে)
তোমার বাঁকা চূড়ায় শোভা পেতাম ওগো শ্যামল বাঁকা ।।

আমি হলে গোপীচন্দন শ্যাম, অলকা-তিলকা হতাম;
শ্যাম, ও চান্দমুখে অলকা-তিলকা হতাম।
শ্রীঅঙ্গের পরশ পেতাম হ’লে কদম শাখা ।।

আমি বৃন্দাবনে বন-কুসুম হতাম যদি কালা,
কণ্ঠ ধ’রে ঝ’রে যেতাম হয়ে বনমালা ।।

আমি নূপুর যদি হতাম হরি/ কাঁদতাম শ্রীচরণ ধরি
ব্রজবুলি হলে রইত বুকে চরণ-চিহ্ন আঁকা।।