দোলা হে দোলা হে দোলা হে দোলা
আঁকা-বাঁকা পথে মোরা
কাঁধে নিয়ে ছুটে যাই
রাজা মহারাজাদের দোলা, ও দোলা
আমাদের জীবনের ঘামে ভেজা শরীরের
বিনিময়ে পথ চলে দোলা, হে দোলা
হেইয়ানা হেইয়ানা
হেইয়ানা হেইয়া।।

দোলার ভিতরে ঝলমল করে যে
সুন্দর পোষাকের সাজ
আর ফিরে ফিরে দেখি তাই
ঝিকমিক করে যে মাথায় রেশমের তাজ
হায় মোর ছেলেটির উলঙ্গ শরীরে
একটুও জামা নেই খোলা
দু’চোখে জল এলে মনটাকে বেঁধে যে
তবুও বয়ে যায় দোলা হে দোলা।।

যুগে যুগে ছুটি মোরা কাঁধে নিয়ে দোলাটি
দেহ ভেঙ্গে ভেঙ্গে পরে হো পরে।
ঘুমে চোখ ঢুলু ঢুলু রাজা মহারাজাদের
আমাদের ঘাম ঝরে পড়ে হো পড়ে
উঁচু ঐ পাহাড়ে ধীরে ধীরে উঠে যাই
ভালো করে পায়ে পা মেলা
হঠাৎ কাঁধের থেকে পিছলিয়ে যদি পড়ে
আর দোলা যাবে নাকো তোলা
রাজা মহারাজার দোলা
বড় বড় মানুষের দোলা
ও দোলা আঁকা-বাঁকা পথে মোরা
কাঁধে নিয়ে ছুটে যাই
রাজা-মহারাজাদের দোলা
হে দোলা হে দোলা হে দোলা
হে দোলা।।