সখী কারে ডাকে ঐ বাঁশি নাম ধরিয়া
তুই দে না বলিয়া।

আমি হৃদয়ও আসনে তারে
বসাবো যতন করে
খোঁপাতে রাখিবো গাঁথিয়া
তারে দে না আনিয়া।।

কহিতে শরম লাগে
আধারে কাঁপন জাগে।

মরেছি আমি সখী মরার আগে
আমি দেখিবো নয়ন ভরে
কাজল করিয়া তারে
নয়নে রাখিবো আঁকিয়া
তারে দে না আনিয়া।।

বলে যা বলুক লোকে
পরাণ সপিবো তাকে।

পীড়িতি আগুন সখী পোড়াবো তাকে
আমি সারাটি জনম ধরে
আপন করিয়া তারে
আঁচলে রাখিবো বাধিয়ে
তারে দে না আনিয়া।।