গুরু তোমার অমর বাণী দিয়েছো আমায়।
যুগে যুগে অমর হয়ে চেতনা জাগায়।

ঘুমিয়ে আছে যে জাতি ভীষণ অজ্ঞতায়।
জাগিয়ে দিয়েছো গুরু পথেরি দিশায়।

লালনের ঐ একতারাতে ভাবেরো মেলা।
মিটে যায় সে সুধা পানে অন্তরের জ্বালা।

জলের ভিতর কেমনে জ্বলে এমন এক পিদিম।
ঝড়-তুফানে বাও-বাতাসে
তবু অমলিন।

মাটিরো পিঞ্জিরার মাঝে বন্দি হইয়ারে।
কান্দে হাসন রাজার মন মইয়া রে।

গুরু আছে কত জনা আমারো দেশে।
কেউ বা ফকির কেউ সন্নাসী অচেনা বেশে।

সেইতো গুরু যে জন বলে ভক্তিরো কথা।
খুঁজে ফিরে জনে জনে অজানা ব্যাথা।
লালনের ঐ একতারাতে…..