তুমি গাছ চিনায়ে খুব যতনে
টেনে নিলে দয়ার মই
মন মরিলে অচল গাড়ী
আমি তো আর আমার নই।
যৌবনের সেই উতলা দিন
কোন ফাঁকে কই গেলরে সই।।

কেশ পেশীতে অকাল ঝরা
রসিক মনে ভাবের খরা
কানামাছি ভোঁ ভোঁ করে
ধরলে মিছে কোথায় কারে
জল শুকিয়ে কাঁদায় ভাসে
মরা গাঙ্গে জ্যান্ত কৈ।।

চোখের দেখায় ভুল হয়ে যায়
দেহের সুধা ক্ষুধাতে খায়
দিনে দিনে দরদ ফুরায়
ভিড়বে তরী কোন কিনারায়
নিজের বলে কি ধন রবে
উড়ে যাবে মনের বারুই।।

কোথায় যাবে নাই ঠিকানা
দন্ধে আছো ও মন কানা
কিসে হবে কার্য করণ
ভুল বিলাসে ভজন সাধন
লিখন বলে কোন পথে যাই
সময় ফুরায় কাণ্ডারি কই।।