ব্যান্ড

যে পথে পথিক নেই

যে পথে পথিক নেই
বসে আছি সেই পথে
একা আমি একলা রাতে
শত শতাব্দী ধরে
চুপচাপ নিশ্চুপ চারিধার
বসে আছি এই আমি
একগ্লাস জোছনা আর
একগ্লাস অন্ধকার হাতে।।

অর্ধেক পুর্ণিমা রাতে, মেঘের আড়ালে
আকাশের লুকোচুরি খেলা, নির্ঘূম রাত শেষে
চাঁদের হাসি হয়, সূর্যের আশীর্বাদে
ক্লান্ত প্রভাতে, সূর্যের আশীর্বাদে।।

রাত জাগা অজস্র তাঁরা বানায় আলোর সেতু
নিরব রাতে নিরবতা ভাঙ্গে
উড়ন্ত ধূমকেতু ছায়াপথ ধরে
আমি হেঁটে যাই, অসীম আমি
ঈশ্বরের মত ভবঘুরে স্বপ্নগুলো
রাতের অরণ্যে ভোজসভায় উৎসবে মাতে
একা আমি একলা রাতে শত শতাব্দি ধরে
চুপচাপ নিশ্চুপ চারিধার বসে আছি এই আমি
একগ্লাস জোছনা আর একগ্লাস অন্ধকার হাতে।।
পথ ধরে আমি হেঁটে যাই অসীম আমি
ঈশ্বরের মত ভবঘুরে স্বপ্নগুলো
রাতের অরণ্যে ভোজসভায় উৎসবে মাতে
একা আমি একলা রাতে
চুপচাপ নিশ্চুপ চারিধার বসে আছি এই আমি
একগ্লাস জোছনা আর একগ্লাস অন্ধকার হাতে।।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।