জীবনে যারে তুমি দাওনি মালা,
মরণে কেন তারে দিতে এলে ফুল
মুখপানে যার কভু চাওনি ফিরে,
কেন তারি লাগি আঁখি অশ্রু সজল।

চিরদিন যারে তুমি দিয়েছো হেলা,
হৃদয় লয়ে শুধু খেলেছো খেলা
বিরহে তারি আজি বলো গো কেন,
শূন্য লাগে এই ধরণী বিপুল।।

আমি তো ছিলাম প্রিয় তোমারই কাছে,
সেই বকুল তলে সেই চাঁদিনী রাতে
সেদিন কেন দিলে না তো হায়
যে মালাখানি ছিল তোমারই হাতে
মোর যত প্রেম, মোর যত গান,
চাইনি তো কভু কোনো প্রতিদান
চিরতরে হায় যবে নিলাম বিদায়, (আমি)
তুমি বুঝিলে কিগো তব হৃদয়ের ভুল।।