রবীন্দ্র সংগীত

শ্রাবণ, তুমি বাতাসে কার আভাস পেলে–

শ্রাবণ, তুমি বাতাসে কার আভাস পেলে–

পথে তারি সকল বারি দিলে ঢেলে।

কেয়া কাঁদে, “যা য় যা য় যায়।’

কদম ঝরে, “হা য় হা য় হায়।’

পুব-হাওয়া কয়, “ওর তো সময় নাই বাকি আর।’

শরৎ বলে, “যাক-না সময়, ভয় কিবা তার–

কাটবে বেলা আকাশ-মাঝে বিনা কাজে অসময়ের খেলা খেলে।’

কালো মেঘের আর কি আছে দিন, ও যে হল সাথিহীন।

পুব-হাওয়া কয়, “কালোর এবার যাওয়াই ভালো।’

শরৎ বলে, “মিলিয়ে দেব কালোয় আলো–

সাজবে বাদল আকাশ-মাঝে সোনার সাজে কালিমা ওর মুছে ফেলে।’

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।