একলা বসে বাদল-শেষে শুনি কত কী–

‘এবার আমার গেল বেলা’ বলে কেতকী॥

বৃষ্টি-সারা মেঘ যে তারে ডেকে গেল আকাশপারে,

তাই তো সে যে উদাস হল– নইলে যেত কি॥

ছিল সে যে একটি ধারে বনের কিনারায়,

উঠত কেঁপে তড়িৎ-আলোর চকিত ইশারায়।

শ্রাবণঘন-অন্ধকারে গন্ধ যেত অভিসারে–

সন্ধ্যাতারা আড়াল থেকে খবর পেত কি॥