ছিন্ন পাতার সাজাই তরণী
একা একা করি খেলা
আন্‌মনা যেন দিকবালিকার
ভাসানো মেঘের ভেলা।।

যেমন হেলায় অলস ছন্দে
কোন্‌ খেয়ালির কোন্‌ আনন্দে
সকালে-ধরানো আমের মুকুল
ঝরানো বিকালবেলা।।

যে বাতাস নেয় ফুলের গন্ধ
ভুলে যায় দিন শেষে
তার হাতে দিই আমার ছন্দ
কোথা যায় কে জানে সে।
লক্ষ্যবিহীন স্রোতের ধারায় যেন
যেন মোর সকলই হারায়
চিরদিন আমি পথের নেশায়
পাথেয় করেছি হেলা।।