বসন্তপ্রভাতে এক মালতীর ফুল
প্রথম মেলিল আঁখি তার,
চাহিয়া দেখিল চারি ধার।।

উষারানী দাঁড়াইয়া শিয়রে তাহার
দেখিছে ফুলের ঘুম-ভাঙা।
হরষে কপোল তার রাঙা।।
মধুকর গান গেয়ে বলে,
‘মধু কই । মধু দাও দাও।

হরষে হৃদয় ফেটে গিয়ে ফুল বলে, ‘এই লও লও।
বায়ু আসি কহে কানে কানে
‘ফুলবালা, পরিমল দাও ।

আনন্দে কাঁদিয়া কহে ফুল,
‘যাহা আছে সব লয়ে যাও।

হরষ ধরে না তার চিতে
আপনারে চাহে বিলাইতে
বালিকা আনন্দে কুটি-কুটি
পাতায় পাতায় পড়ে লুটি।।