বকুলগন্ধে বন্যা এল দখিন হাওয়ার স্রোতে

বকুলগন্ধে বন্যা এল দখিন হাওয়ার স্রোতে।
পুষ্পধনু, ভাসাও তরী নন্দনতীর হতে।।

পলাশকলি দিকে দিকে তোমার আখর দিল লিখে,
চঞ্চলতা জাগিয়ে দিল অরণ্যে পর্বতে।।

আকাশপারে পেতে আছে একলা আসনখানি,–
নিত্যকালের সেই বিরহীর জাগল আশার বাণী।।

পাতায় পাতায় ঘাসে ঘাসে নবীন প্রাণের পত্র আসে,
পলাশ-জবায় কনকচাঁপায় অশোকে অশ্বথে।।